advertisement
আপনি পড়ছেন

‘যেয়ো না নেইমার’ ধ্বনিতে কাঁপছে পুরো বার্সেলোনা। সেটা আরো বাড়িয়ে দিলেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার। মৌসুম শুরুর আগে প্রস্তুতি হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়ন্স কাপ খেলছে ক্লাবগুলো। বার্সেলোনা প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমেছিল জুভেন্টাসের বিপক্ষে। রোববার ভোরে জুভেন্টাসের বিপক্ষে বল পায়ে কি জাদুটাই না দেখালেন নেইমার। নেইমার জাদুতে জুভেন্টাসের বিপক্ষে ২-১ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা।

neymar vs juventus

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সিতে ভোরে ম্যাচের ৪৬ মিনিটে মেসি-নেইমার দুজনকেই তুলে নিয়েছেন বার্সেলোনার নতুন কোচ ভালভারদে। তার আগে বল পায়ে যেভাবে ফুল ফুটিয়েছেন ব্রাজিল তারকা তাতে অনেক বার্সা সমর্থকের ভাবতেও হয়তো কষ্টো হচ্ছে যে, এমন একজনকে হারাতে হতে পারে তাদের!

বার্সেলোনা ছেড়ে নেইমারের পিএসজিতে যাওয়ার গুঞ্জন দিনদিন বেড়েই চলেছে। যুক্তরাষ্ট্রে ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়ন্স কাপ খেলে নাকি বার্সায় নয়, নেইমার চলে যাবেন পিএসজিতে! এমন গুঞ্জন চলাকালে নেইমার যে খেলাটা খেললেন এক কথায় অসাধারণ।

প্রথমার্ধে লুইস সুয়ারেজ ছিলেন না। নেইমার বাঁ পাশে, আর মেসি ডান পাশে। সুয়ারেজের অনুপস্থিতিতে একটু নিচে নেমে নেইমারকে বলের যোগান দিয়ে গেলেন মেসি, এরপর জুভেন্টাস ডিফেন্ডারদের রীতিমতো কাঁদিয়ে ছেড়েছেন নেইমার।

ম্যাচের ২৬ মিনিটের গোলটা কাঁদানোর মতোই। মেসির পাস যতক্ষণে নেইমারের কাছে গেলো, ততক্ষণে জুভেন্টাসের অন্তত পাঁচ ডিফেন্ডার ঘিরে ধরেছেন নেইমারকে। কিন্তু সেই দু পায়ের নিপুন কারিকুরিতে সেই দেয়াল টপকে গোলরক্ষক জিয়ানলুইজি বুফনকে বোকা বানিয়ে বল জালে জড়িয়ে দেন নেইমার।

তার আগে ম্যাচের ১৫ মিনিটের গোলটা নিয়েই গল্প করা যাবে অনেকক্ষণ। ডি-বক্সের ভেতরে পাকো আলকাসারের পাস ধরার সময়ও নেইমারের সামনে দুইজন জুভেন্টাস ডিফেন্ডার। কিন্তু তাদের ফাঁকি দিয়ে দারুণ এক শটে বুফনকে পরাস্ত করেছেন নেইমার। বার্সেলোনার পক্ষে আর কেউ গোল করতে পারেননি।

ম্যাচের ৬৩ মিনিটে জুভেন্টাসের হয়ে একটি গোল পরিশোধ করেছেন কিয়েল্লিনি। যাতে শেষ পর্যন্ত ২-১ গোলের নেইমারময় জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে বার্সেলোনা।