advertisement
আপনি পড়ছেন

ক্লাব ফুটবলের ইতিহাসে রেকর্ড পরিমাণ ট্রান্সফার ফি দিয়ে বার্সেলোনা থেকে পিএসজিতে নাম লিখিয়েছেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার। ধারণা করা হচ্ছে, গেঁগাঁর বিপক্ষেই পিএসজির হয়ে অভিষেক ম্যাচে নামছেন নেইমার। কিন্তু শুরুতেই অন্যরকম এক ধাক্কা খাচ্ছেন এই সুপারস্টার।

neymar in psg

লিগ ওয়ানে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে এস্তাদে দু রোদুরুতে টানা মাঠে নামছে পিএসজি। নেইমারের নিজ দেশ ব্রাজিলের মারাকানা বা সাবেক ক্লাব বার্সেলোনার ঘরের মাঠ ন্যু ক্যাম্পে যেখানে লাখের কাছাকাছি দর্শক হয়। সেখানে নেইমারের ফ্রান্স মিশনে এমন এক মাঠে অভিষেকই হচ্ছে যেখানে অধিবাসী সংখ্যা মাত্র সাত হাজার। আর স্টেডিয়ামে সব মিলিয়ে ধারণক্ষমতা ১৭ হাজার। ফুটবল বোদ্ধারা বলছেন, এই অভিজ্ঞতা নেইমারের কাছে এক বড় ধাক্কা।

স্পেনের বেশ কিছু ক্লাবের স্টেডিয়ামের ধারণক্ষমতাও তুলনামূলক অনেক কম। গেঁগাঁর সভাপতি বারট্রান্ড দেসপ্লাত নিজেও বলেছেন, ‘নেইমারের অভিষেক ম্যাচে চাইলেই ৪০ হাজারের আসনও ভরিয়ে ফেলা যেত। তবে নেইমারের অভিষেকে আয়োজনের কোন কমতি রাখা হবে না।’

পিএসজি কোচ উনাই এমেরিও বলেছেন, ‘নেইমার পুরো ৯০ মিনিট খেলার জন্য শারীরিকভাবে প্রস্তুত। আমাদের সবার সঙ্গে মানিয়ে নিয়েছে। নতুন কৌশল আর ফ্রি কিকগুলো রপ্ত করেছে। আমরা নেইমারকে একাদশে চাই।’

জানা গেছে, নেইমার মাঠে নামলে জায়গা ছেড়ে দিতে হবে আর্জেন্টিনার হাভিয়ের পাস্তোরোকে। পাস্তোরো প্রথমে ১০ নম্বর জার্সি এরপর তার প্রিয় বাঁ প্রান্তও হারালেন।