advertisement
আপনি পড়ছেন

সান্তোসে থাকতে মোটা অঙ্কের প্রস্তাব পেয়েছিলেন রিয়াল মাদ্রিদের কাছ থেকে। কিন্তু ভালোবেসে বেছে নিয়েছিলেন বার্সেলোনাকে। রিয়ালের প্রস্তাবের অনেক কমে বার্সায় এসেছিলেন নেইমার। কিন্তু চলতি মৌসুমের আগে সেই বার্সা ছেড়ে দিয়েছেন। কারণ, বিশ্বসেরা হতে চান। লিওনেল মেসির ছায়ায় থাকলে বিশ্বসেরার হওয়ার লক্ষ্য পূরণ এখনই সম্ভব নয় মনে করে পিএসজিতে যোগ দিয়েছেন ব্রাজিল তারকা।

nejmar ronaldo brazil1

পিএসজিকে বেঁছে নেয়া নিয়ে অনেকে সংশয় প্রকাশ করলেও প্রথম মৌসুমেই ব্যালন ডি’অর জয়ের সুযোগের সামেন নেইমার। পিএসজির হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিততে পারলে আগামী বছর নেইমারে হাতেই ব্যালন ডি’অর উঠবে, বলছেন প্রায় সবাই। এদিকে, রাশিয়া বিশ্বকাপও এই বছর। রাশিয়ায় ব্রাজিল যদি ষষ্ঠ বিশ্বকাপ শিরোপা উদযাপন করেন তবে নেইমারের বিশ্বসেরা হওয়া ঠেকানো সম্ভব হবে না লিওনেল মেসি আর ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর।

তবে এই সম্ভাবনাগুলো যদি সত্যি না হয়। অর্থাৎ এবছর যদি নেইমার বিশ্বসেরা নাও হন তবে আগামীতে হবেন। মোট কথা নেইমার অবশ্যই বিশ্বসেরা হবেন। কথাটা ব্রাজিলের হয়ে দুবার বিশ্বকাপ জেতা তারকা রোনালদোর।

রোনালদো বলেন, ‘আমি মনে করি, আগে হোক বা পরে সে এটা (ব্যালন ডি’অর) অবশ্যই জিতবে। এ বছর না হলেও আগামী বছর জিতবে। কারণ সে দারুণ সম্ভাবনাময়ী খেলোয়াড়।’

বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ দুই ক্লাবেই খেলা ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি ব্যাখ্যা করেছেন, ‘আমার মতে, প্রতিবার সে ব্যক্তিগত পুরস্কাটি জেতার কাছে, আরও কাছে যাচ্ছে। আমি নিশ্চিত, সে এটার (ব্যালন ডি’অর) কাছাকাছিই আছে। ২০১৮ সালটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এ বছর বিশ্বকাপ হবে। আপনি যদি ফাইনালে একটা গোল করেন তাহলে সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কারটি জেতার দারুণ সম্ভাবনা থাকবে আপনার।’