advertisement
আপনি পড়ছেন

ব্রাজিলের সাও পাওলোর মতো ফুটবলের উর্বর ভূমিতে জন্ম নেইমারের। এই ছেলে যে অনেকদূর যাবে বুঝতে পেরে ২০০৩ সালে ছোট্ট নেইমারকে সান্তোস ফুটবল ক্লাবে ভর্তি করে দেন বাবা। সেখানে আলো ছড়িয়ে সান্তোসের সিনিয়র দলে অভিষেক হয় ২০০৯ সালে। তারপর আর পেছনে তাকাতে হয়নি।

neymar 16 year old

সান্তোসে বিশ্বতারকা হওয়ার বার্তা দিয়েছিলেন। বার্সেলোনায় এসে নিজেকে আরও বিকশিত করেছেন। বার্সা ছেড়ে বিশ্বসেরা হওয়ার লক্ষ্য নিয়ে পিএসজিতে গিয়ে বল পায়ে সৌন্দর্য্য ছড়াচ্ছেন ব্রাজিল সুপারস্টার। তবে নেইমারের গল্পটা কিন্তু এমন নাও হতে পারতো!

ঠিক এমনই জানিয়েছেন নিকোলাই নেউমোভ। ভদ্রলোক রাশিয়ান ক্লাব লোকোমোতিভ মস্কোর সাবেক চেয়ারম্যান। নিকোলাইয়ের দাবি, ঠিক এক দশক আগে রাশিয়ার এই ক্লাবটিতে যাওয়ার চেষ্টা করেছিলেন নেইমার। ঘটনাটা ২০০৮ সালের। নেইমার তখন কেবল ১৬ বছরের এক সম্ভাবনাময় তরুণ। সম্ভাবনা থাকলেও অভিজ্ঞতার কোটা ছিল শূণ্য। তাই মাত্র ১০ মিলিয়ন ইউরোতে কেনার সুযোগ পেলেও নেইমারকে তারা সে সময় ফিরিয়ে দিয়েছিলেন বলে দাবি নিকোলাইয়ের।

barcelona neymar

স্পোর্ট-এক্সপ্রেসকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন, ‘আমরা তাকে কিনতে চেয়েছিলাম। আমাদের স্কাউটেরা তাকে দেখেছিল। কিন্তু সে অনেক তরুণ ছিল। তাছাড়া রাশিয়াতে কতোটা মানিয়ে নিতে পারবে সেটাও একটা দিক ছিল। আর ১০ মিলিয়ন ইউরো একজন তরুণ খেলোয়াড়ের জন্য অনেক বেশি, বিশেষ করে অন্য মহাদেশের একজনের জন্য। এসব কারণে আমরা তাকে না নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম।’

ওই সিদ্ধান্ত যে হিরের টুকরো হেলায় ফেলে দেয়ার মতো ছিল নিকোলাই খুব ভালো করেই বুঝছেন এখন!