advertisement
আপনি পড়ছেন

‘আমার ঘরেও জ্বালা, বাইরেও জ্বালা...জ্বালা রাইতে দিনে’ কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী বারী সিদ্দিকীর সেই জনপ্রিয় গানটি শোনার কথা নয় উনাই এমেরির। একবার শুনলে হয়তো বারবারই শুনতে চাইতেন পিএসজি কোচ! গানের প্রথম কথাগুলোর সঙ্গে যে তার বর্তমান সময়টার বড্ড মিল।

unai emery di maria silva

কতো প্রত্যাশা নিয়ে এসেছিলেন মাদ্রিদে; মৌসুমের শুরু থেকে ধুঁকতে থাকা রিয়াল মাদ্রিদকে হারিয়ে দিবেন। যেটা পিএসজির প্রথম চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা জয়ের রাস্তা পাকা করে দিবে। উনাই এমেরির এই প্রত্যাশা যৌক্তিকই ছিল। কিন্তু হলো তার উল্টোটা। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর দাপটে মাদ্রিদে এসে উল্টো ৩-১ গোলে হেরে গেছে পিএসজি। প্রথম চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা জয়ের স্বপ্ন দেখা পিএসজি এখন বাদ পড়ার দুঃশ্চিন্তায়। এমনটা হলে যা হবার তাই হচ্ছে।

সমালোচকদের কথা তাকে জড়িয়ে ধরছে অক্টোপাসের মতো। ম্যাচে এমেরির কৌশল নিয়ে সমালোচনা করছেন অনেকে। দারুণ ফর্মে থাকা অ্যাঞ্জেলো ডি মারিয়াকে মাঠে না নামানোর সমালোচনা হচ্ছে। দল নির্বাচন নিয়েও শুনতে হচ্ছে কটু কথা। শুধু বাইরের লোকদের নয়, ‘ঘরের’ সমালোচনাও হজম করতে হচ্ছে এমেরিকে।

di maria psg

ডি মারিয়া এক ম্যাচ আগেই হ্যাটট্রিক করেছিলেন। কিন্তু রিয়ালের বিপক্ষে তাকে এক মিনিটের জন্যও মাঠে নামাননি এমেরি। এদিকে রিয়ালের বিপক্ষে পিএসজির রক্ষণভাগের অন্যতম সেরা প্রহরি থিয়েগো সিলভাকেও বসিয়ে রেখেছিলেন পিএসজি কোচ। এই সিদ্ধান্তের কারণেই পিএসজির হার, বেশি লোককে হয়তো এমন কথা বলতে শোনা যাবে না। তবে কেউ কেউ তো বলবেনই।

তাদের মধ্যে দুজন ডি মারিয়া ও থিয়েগো সিলভার স্ত্রী। স্বামীকে বসিয়ে রাখার জন্য পিএসজি কোচ উনাই এমেরিকে রীতিমতো ধুয়ে দিয়েছেন অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়ার স্ত্রী হোর্জেলিনা কার্দোসো ও থিয়েগো সিলভার স্ত্রী বেলে সিলভা।

ইনস্টাগ্রামে ডি মারিয়ার স্ত্রী লিখেছেন, ‘তোমার প্রচেষ্টা+ কঠোর পরিশ্রম+ তোমার গোল+ তোমার অ্যাসিস্ট+ তোমার দুর্দান্ত ফর্ম= রিজার্ভ বেঞ্চ! সত্যিই দারুণ!’ ডি মারিয়া কঠোর পরিশ্রম করছেন, গোল করছেন, করাচ্ছেন, দুর্দান্ত ফর্মে আছে কিন্তু তার ফলাফল হিসেবে তাকে রিজার্ভ বেঞ্চে বসিয়ে রাখা হলো, এটাই বুঝাতে চেয়েছেন কার্দোসো।

এদিকে, থিয়েগো সিলভার স্ত্রী বেলে সিলভা এমেরির কৌশলের সমালোচনা করেছেন। ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন,‘কৌশল? কিসের কৌশল?’ দলীয় কৌশলের অংশ হিসেবে থিয়েগো সিলভাকে বাইরে রাখা হচ্ছে, এমনটি হয়তো বলা হয়েছে এমেরির পক্ষ থেকে।