advertisement
আপনি পড়ছেন

দল বদলের অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে গত বছরের আগস্টে বার্সেলোনা ছেড়ে প্যারিস সেন্ট জার্মেইতে (পিএসজি) পাড়ি জমিয়েছেন নেইমার। কয়েক মাস না যেতেই বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলারের দল-বদল নিয়ে ফের গুঞ্জন ওঠে। ইউরোপিয়ান গণমাধ্যমের খবর- মৌসুম শেষে রিয়াল মাদ্রিদে যেতে পারেন নেইমার।

neymar might go to real madrid

স্প্যানিশ ক্লাবটির প্রেসিডেন্ট ফ্লোরেন্তিনো পেরেজও ব্রাজিলিয়ান সেনসেশনকে দলে টানতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন অনেক দিন ধরে। মোটা অংকে তাকে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে আনতেও রাজি ছিল রিয়াল। সবকিছু ঠিকঠাকই এগুচ্ছিল।

কিন্তু উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে নকআউট পর্বের প্রথম লেগ শেষে বাধ সাধলেন খোদ পিএসজির কর্ণধার নাসির আল খেলাইফি। সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে রিয়ালের কাছে ৩-১ গোলে হারের পর তিনি বলে দিলেন, ‘আপনি শতভাগ নিশ্চিত থাকতে পারেন। নেইমারের (রিয়াল) মাদ্রিদে যাওয়া হচ্ছে না।’

খেলাইফির কথার জেরে নেইমারের ট্রান্সফার নিয়ে কিছুদিন বন্ধ ছিল ফিসফাঁস। এরই মধ্যে আবার উঠল তার স্প্যানিশ ফুটবলে ফেরার গুঞ্জন। এতদিন কুলুপ এঁটে রাখা খোদ নেইমারই নাকি মুখ খুলে কথা বলেছেন এ ব্যাপারে। স্পেনের সাপ্তাহিক সাময়িকী 'ডন ব্যালন' এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে যেতে নাকি রিয়ালকে একটি শর্ত দিয়েছেন নেইমার।

তা কী সেই শর্ত? ক্লাবের বর্তমান প্রধান খেলোয়াড় ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর দ্বিগুন পারিশ্রমিক চেয়েছেন নেইমার। সে লক্ষ্যে প্রতি বছরের চুক্তির জন্য রিয়ালের কাছে ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার দাবি করেছেন ৫০ মিলিয়ন ইউরো। যা রোনালদোর আয়ের দ্বিগুণ।

অবশ্য তার প্রতি রিয়াল মাদ্রিদের যে তুমুল আগ্রহ জন্মেছে সেই তুলনায় অংকটা কমই বলেছেন নেইমার। ইউরোপ সেরা দলটি রাজি হয় কিনা সেটাই দেখার বিষয়। তবে দুই পক্ষ চুক্তিতে সম্মত হলেও তাদের মাঝখানে বড় একটা দেয়াল আছে। বাধার নাম পিএসজি সভাপতি খেলাইফি। তাকে রাজি করানোটা যে কঠিনই হবে!