advertisement
আপনি পড়ছেন

কদিন বাদেই প্যারিসে মহাযুদ্ধের দ্বিতীয় পর্ব। ঠিক তার আগে উড়তে থাকা রিয়াল মাদ্রিদ খেলো প্রচণ্ড এক ধাক্কা। তাদের হারতে হলো এস্পানিয়লের কাছে। মঙ্গলবার শেষ মুহূর্তের গোলে হেরে বসল জিনেদিন জিদানের দল। স্প্যানিশ লা লিগার চলতি মৌসুমে এটা তাদের চতুর্থ হার।

espanyol beats real madrid in last time of the match

এই হারে লিগ শিরোপা দৌড়ে আরো পিছিয়ে পড়ল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। ২৫ ম্যাচে তাদের অর্জন ৫১ পয়েন্ট। তাদের চেয়ে ১৪ পয়েন্ট এগিয়ে থেকে যথারীতি শীর্ষে আছে বার্সেলোনা। দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর মাঝে আছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। সমান ম্যাচে সিমিয়নের দলের সংগ্রহ ৫৮ পয়েন্ট।

আরসিডিই স্টেডিয়ামে রিয়াল মাদ্রিদ- এস্পানিয়লের লড়াইটা গোলশূন্য ড্রয়ের দিকেই এগুচ্ছিল। নির্ধারিত সময় পার হয়ে গেলেও গোল নামক সোনার হরিণের দেখা পাচ্ছিল না কোনো দল।

দ্বিতীয়ার্ধে যোগ করা সময়ের তৃতীয় মিনিটে বাজিমাত করে এস্পানিয়ল। স্বাগতিক সমর্থকদের উচ্ছ্বাসে ভাসিয়ে জেরার্ড মরিনো রিয়ালের জাল কাঁপান। সার্জিয়া গার্সিয়ার নিখুঁত ক্রসটার সুন্দর পরিণতি দেন মরিনো।

৬ মার্চ প্যারিস সেন্ট জার্মেইর (পিএসজি) সঙ্গে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফিরতি লিগের ম্যাচ। মহারণকে সামনে রেখে প্রাণভোমরা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে বিশ্রাম দিয়েছিলেন কোচ জিদান। চোট ম্যাচ থেকে ছিটকে দিয়েছিল ক্যাসেমিরোকেও। শুরুর একাদশে ছিলেন না করিম বেজজেমাও।

বিবিসির মধ্যে শুধু গ্যারেথ বেলই মাঠে নেমেছিলেন রিয়াল কোচ জিদান। কিন্তু রোনালদোর অনুপস্থিতির রাতে জ্বলে উঠতে পারেননি মার্কো অ্যাসেনসিও-ইস্কোরা। একের পর এক গোল মিস করে ম্যাচটাকে নিয়ে গেছেন ড্রয়ের দিকে। কিন্তু দুর্ভাগ্য, শেষ সময়ের গোলে কপাল পুড়েছে তাদের।