advertisement
আপনি পড়ছেন

২০১৭ সালটা দুহাত ভরে দিয়েছে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে। রিয়াল মাদ্রিদ প্রাণভোমরা হয়েছেন ফিফার বর্ষসেরা ফুটবলার, পেয়েছেন ব্যালন ডি’অরের স্বীকৃতিও। এবার আরো একটা সেরার স্বীকৃতি পেলেন ‘সিআর সেভেন’। আবারো পর্তুগালের বর্ষসেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হলেন রোনালদো।

ronaldo with his girl girlfriend georgina rodriguez

সোমবার সেরার ট্রফি হাতে নিয়ে সমালোচকদের ফের একহাত নিলেন রোনালদো। বলেছেন, ‘আমি সবসময়ই বিশ্বাস করি এবং বলি আমিই সেরা। তারা তো অনেক কিছুই বলে। আমি মাঠে সেটা প্রমাণ করেছি।’

পর্তুগালের সেরা হওয়ার দৌড়ে রোনালদো পেছনে ফেলেছেন স্পোর্টিং সিপির গোলরক্ষক রুই প্যাট্রিসিও এবং ম্যানচেস্টার সিটির উদীয়মান তারকা ফুটবলার বার্নাডো সিলভাকে। তবে লড়াইটা হয়েছে দ্বিতীয়স্থান নিয়ে। রোনালদো যেখানে মোট ভোটের ৬৫ শতাংশ পেয়েছেন, সেখানে প্যাট্রিসিও ১৮ এবং ১৭ শতাংশ ভোট গেছে বার্নাডোর বাক্সে।

অবশ্য পর্তুগালের বর্ষসেরার পুরস্কার চালু হয়েছে বেশিদিন হয়নি। মাত্র তিন বছর। বিস্ময়করভাবে প্রত্যেক আসরের মুকুট উঠেছে একজনের মাথায়। তিনি রোনালদো। সোমবার লিসবনের আলোঝলমল সন্ধ্যায় পুরস্কার হাতে নিয়ে ভীষণ উচ্ছ্বসিত রিয়াল মাদ্রিদ প্রাণভোমরা।

ব্যক্তিগত নৈপুণ্যের এই স্বীকৃতি চার সন্তানকে উৎসর্গ করেছেন রোনালদো। বলেছেন, ‘আমি পঞ্চম ব্যালন ডি’অরও পেয়েছি। এখন আরো একটা ট্রফি পেলাম। এটা আমি আমার চার সন্তানকে উৎসর্গ করছি।’

একটু পরই কৌতুকের ছলে রোনালদো বলে দিলেন, ‘এটাও একটা রেকর্ড, যে তিন মাসে আমি তিন সন্তানের বাবা হয়েছি!’ তবে এই ট্রফির জন্য সতীর্থদের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলেন রোনালদো। বলেছেন, ‘আমার সতীর্থদের ধন্যবাদ। তারা পাশে না থাকলে আমি কখনোই এই অবস্থানে আসতে পারতাম না।’

প্রসঙ্গত, গত মৌসুমে সবধরণের প্রতিযোগিতায় ৪৬ ম্যাচে ৪২ গোল করেছিলেন রোনালদো। ফর্মটা এই মৌসুমেও ধরে রেখেছেন ‘সিআর সেভেন’। ইতোমধ্যেই ৩৫ ম্যাচে ৩৭ গোল করেছেন বর্ষসেরা এই ফুটবলার।