আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 29 মিনিট আগে

অঘটনের শঙ্কায় ছিল ম্যানচেস্টার সিটি। দুই গোল পিছিয়ে থেকেও সিটিজেনরা ঠিকই উৎড়ে গেল। কিন্তু অঘটনের শিকার হলো তাদের নগর প্রতিদ্বন্দ্বী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড! শনিবার এফএ কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে উলভারহ্যাম্পটনের কাছে ২-১ গোলে হেরে বিদায় নিল ম্যানইউ।

aguero celebrates after his late goal

অথচ ২৯ মিনিটের মধ্যে দুই গোল হজম করা ম্যানচেস্টার সিটি দুর্দান্ত একটা প্রত্যাবর্তন করেছে। সোয়ানসি সিটিকে নাটকীয়ভাবে ৩-২ গোলে হারিয়ে পেপ গার্দিওলার সিটি উঠে গেছে সেমিফাইনালে। অন্যদিকে ম্যানইউকে হারিয়ে ২১ বছর পর শেষ চারে উঠল উলভারহ্যাম্পটন।

সোয়ানসি সিটির মাঠে গ্রিমসের পেনাল্টি গোলে ২০ মিনিটে পিছিয়ে পড়ে সিটি। এই গোলের ধাক্কা সামলে ওঠার আগেই ব্যবধান দ্বিগুণ করেন সেলিনা। দুই গোলে পিছিয়ে থেকে বিরতিতে যায় গার্দিওলার দল। বিরতির পর বদলে যায় সিটি। হিংস্র বাঘের মতো সোয়নসি সিটির ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে সিটি।

এর ফলও পেয়েছে সফরকারী দলটি। ৬৯ মিনিটে বার্নাডো সিলভার গোলে ব্যবধান কমায় সিটি। নয় মিনিট পর নোডফেল্ডের আত্মঘাতী গোলে সমতায় ফেরে তারা। ৮৮ মিনিটে ম্যাচের পঞ্চম ও জয়সূচক গোলটি করেন পরিবর্তিত হিসেবে মাঠে নামা সার্জিও অ্যাগুয়েরো। এই গোলটি রীতিমতো বিতর্কের সৃষ্টি করেছে। হেড নেওয়ার সময় অ্যাগুয়েরো যে অফসাইডে ছিলেন!

উলভারহ্যাম্পটনের মাঠে শুরু থেকেই ছন্নছাড়া ফুটবল খেলে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। প্রথমার্ধে গোলের সুযোগ তৈরি করেও ব্যর্থ হয়েছে তারা। গোলের দেখা পায়নি স্বাগতিক শিবিরও। অবশেষে ৭০ মিনিটে কোলে গোলমুখ। ম্যানইউর জাল কাঁপান জিমিনেজ।

ছয় মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ডিয়েগো জোতা। ম্যানইউর বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেছে তাতেই। শেষ বাঁশির আগ মুহূর্তে মার্কাশ রাশফোর্ড ম্যানইউর পক্ষে সান্ত্বনার একমাত্র গোলটি করেছেন। কিন্তু বিদায় ঠেকাতে তাও যথেষ্ঠ ছিল না।