advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 12 মিনিট আগে

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরের দুটি মসজিদে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলায় অর্ধশত মুসলমান নিহত হয়েছেন। গত শুক্রবারের ন্যাক্কারজনক এই হামলায় শোকের চাদরে ঢেকে গেছে গোটা বিশ্ব। বিশ্বজুড়ে মানুষ যেমন শোকাহত, তেমনি ক্ষুব্ধ। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে এখনো বইছে নিন্দার ঝড়।

memorial near the masjid al noor mosque in christchurc

শুধু স্যোশাল মিডিয়াতেই নয়, বিশ্বজুড়ে রাস্তা-ঘাটসহ বিভিন্ন জায়গায় প্রতিবাদ জানিয়েছেন নানা শ্রেনি-পেশার মানুষ। দুদিন আগে অস্ট্রেলিয়ান ‘এ’ লিগে এক অজি খ্রিষ্টান ফুটবলার ‘সেজদা’ দিয়ে প্রতিবাদ জানিয়ে তো তোলপাড় করে ফেলেছিলেন। গোলের পর উদযাপনের বদলে সেজদা করে তিনি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেছেন সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের প্রতি।

এ ছাড়া বিভিন্ন খেলাধুলায় এক মিনিট নীরবতা পালন করে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে অবস্থান জানিয়েছেন খেলোয়াড়রা। এবার মাঠে দাঁড়িয়ে নিউজিল্যান্ডে নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইউরোপিয়ান ফুটবল পরাশক্তি ইংল্যান্ড। আগামী ২২ মার্চ বিখ্যাত ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে চেক প্রজাতন্ত্রের বিপক্ষের ম্যাচে শ্রদ্ধা জানাবে থ্রি লায়নরা।

সোমবার ফুটবল এসোসিয়েশন (এফএ) এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘ক্রাইস্টচার্চে সন্ত্রাসী হামলায় আক্রান্ত মানুষদের আমরা স্মরণ করব। ২২ মার্চ শুক্রবার, চেক প্রজাতন্ত্র-ইংল্যান্ড ম্যাচে নিহতদের শ্রদ্ধা জানানো হবে।’ অবশ্য সন্ত্রাসী হামলার বিরুদ্ধে এটাই এফএ’র প্রথম পদক্ষেপ নয়। ২০১৫ সালে প্যারিস ট্রাজেডির পর ইংল্যান্ডের সব ক্লাবের খেলোয়াড়রা কালো আর্মব্যান্ড পড়ে মাঠে নেমেছিলেন।

ক্রাইস্টচার্চের আল নূর মসজিদে জুমার নামাজ পড়ার কথা ছিলো নিউজিল্যান্ডে সফররত বাংলাদেশ ক্রিকেট দলেরও। কিন্তু নির্ধারিত সময়ের আগে মসজিদে পৌঁছাতে পারেননি মাহমুদুল্লাহরা। তারা যাওয়ার কয়েক মিনিট আগেই শান্তির শহরে ঘটে গেছে ভয়াল সেই সন্ত্রাসী হামলা। অস্ত্রধারী হামলাকারী অস্ট্রেলিয়ান নাগরিক। ২৮ বছর বয়সী ব্রেনটন টারান্ট আপাতত পুলিশি হেফাজতে আছে। আগামী ৫ এপ্রিল পর্যন্ত এই সন্ত্রাসীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

sheikh mujib 2020