advertisement
আপনি দেখছেন

উয়েফার বর্ষসেরা ফুটবলার নির্বাচিত হয়েছেন ভার্জিল ফন ডাইক। লিওনেল মেসির হাতে উঠেছে ফিফা ‘দ্য বেস্ট’ এর পুরস্কার। দুজনের আসল লড়াইটা হতে যাচ্ছে ব্যালন ডি’অর নিয়ে। ব্যালন ডি’অর জয়ের দৌড়ে ইতোমধ্যেই পিছিয়ে পড়েছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।

lionel messi virgil van dijk ballon dor

ফুটবল বিশ্লেষকদের ধারণা মেসি কিংবা ফন ডাইকের মধ্যে একজন জিতবেন ফ্রান্স ফুটবল সাময়িকীর শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট। দুজনের মধ্যে ফন ডাইককে বেছে নিয়েছেন লিভারপুলের সাবেক ফুটবলার ড্যানি মারফি। তার দাবি, ডাচ ডিফেন্ডার ব্যালন ডি’অর না জিতলে সেটা অন্যায় হবে।

মারফির মতে মেসির নয়, এ বছরের ব্যালন ডি’অর ফন ডাইকের পাওয়া উচিত। মঙ্গলবার টকস্পোর্টকে তিনি বলেছেন, ‘আমার কাছে অবশ্যই (ব্যালন ডি’অর) জয়ীর নাম ভার্জিল ফন ডাইক। ও লিভারপুলকে বদলে দিয়েছে। ফন ডাইকের নেতৃত্বগুণ, খেলার ধরন এক কথায় অসাধারণ।’

মারফি আরো বলেছেন, ‘ফন ডাইকের পারফরম্যান্স ছিল দুর্দান্ত। ওকে ছাড়া কি লিভারপুল চ্যাম্পিয়নস লিগ জিততে পারতো? আমার মনে হয় পারত না। হ্যাঁ, অবশ্যই মোহাম্মদ সালাহ, সাদিও মানে এবং রবার্তো ফিরমিনোর পারফরম্যান্স প্রভাব রেখেছে। কিন্তু ফন ডাইক না থাকলে লিভারপুল এটা জিততে পারতো না।’

এ বছর ক্লাবের জার্সিতে ফন ডাইকের সাফল্য কী তা বলেই দিয়েছেন তার পূর্বসূরি। জাতীয় দল নেদারল্যান্ডসকে তিনি উঠিয়েছেন ইউরো নেশনস লিগের ফাইনালে। অন্যদিকে মেসির নেতৃত্বে আর্জেন্টিনা তৃতীয় সেরা দল হয়েছে কোপা আমেরিকা টুর্নামেন্টে। ক্লাব বার্সেলোনার হয়ে ঘরোয়া ডাবলস জিতেছেন তিনি।