advertisement
আপনি দেখছেন

উয়েফা ও ফিফা বর্ষসেরার লড়াইটা হয়েছে ত্রিমুখি। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, লিওনেল মেসি ও ভার্জিল ফন ডাইকের মধ্যে। প্রথমজন এ বছর দুই ক্যাটাগরিতেই নিজেদের শ্রেষ্ঠত্ব হারিয়েছেন। দ্বিতীয়জন জিতেছেন ফিফা দ্য বেস্ট অ্যাওয়ার্ড। তৃতীয়জনের হাতে উঠেছে ইউরোপের শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট।

kylian mbappe lionel messi 2018 19

ব্যক্তিগত নৈপুণ্যের আসল লড়াইটা চলছে ফ্রান্স ফুটবল সাময়িকী ব্যালন ডি’অর নিয়ে। প্রচারমাধ্যমের ধারণা এই লড়াইয়ে মেসি-রোনালদোর চেয়ে এগিয়ে আছেন ফন ডাইক। অনেকের মতে লিভারপুলের ডাচ ডিফেন্ডার ব্যালন ডি’অর না জিতলে সেটাই বরং আশ্চর্যের হবে।

এই তত্ত্বের সঙ্গে সুর মেলাতে পারছেন না কিলিয়ান এমবাপ্পে। সেরার লড়াইয়ে পিএসজির ফরাসি সেনসেশনের বাজি মেসি। তার মতে বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন অধিনায়কের হাতে উঠবে ব্যালন ডি’অরের ষষ্ঠ ট্রফি। গত বছর এই ট্রফির জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন এমবাপ্পে। হয়েছিলেন চতুর্থ সেরা ফুটবলার।

সেবার তার প্রিয় ফুটবলার রোনালদোর মাথায় উঠেছিল মুকুট। এবার সিংহাসনে মেসি উঠবেন বলে বিশ্বাস এমবাপ্পের। তিনি বলেছেন, ‘ব্যক্তিগত নৈপুণ্য হিসেব করলে সে (মেসি) এ বছরের সেরা খেলোয়াড়।’ এমবাপ্পে এ বছরের সেরা ফুটবলারকে বেছে নিয়েছেন তার মতো করে। তাতে কিছুটা হলেও মন খারাপ হতে পারে তার আইডল রোনালদো ও ফন ডাইকের।