advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 33 মিনিট আগে

প্রতিটি দলবদলের মৌসুম শুরুর আগে আলোচনায় থাকেন নির্দিষ্ট কিছু ফুটবলার। তাদের ক্লাব পরিবর্তনের কোনো আভাস না থাকলেও গুঞ্জন থেমে থাকে না। এই যেমন কিলিয়ান এমবাপ্পে ও নেইমার সাম্প্রতিককালে আলোচনার তুঙ্গে আছেন। দুজনই খেলছেন প্যারিস সেন্ট জার্মেইতে (পিএসজি)।

mbappe and hazard

দুজনের একজনকে হলেও খুব করে চাইছে রিয়াল মাদ্রিদ। কয়েক দফা বৃথা চেষ্টাও করেছে স্প্যানিশ জায়ান্টরা। তাই বলে আশা ছাড়ছে না তারা। আপাতত নেইমারের চেয়ে এমবাপ্পের দিকেই বেশি নজর তাদের। লস ব্ল্যাঙ্কোসরা আশায় আছেন এমবাপ্পে চলে আসবেন সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে।

সম্প্রতি হাঁড়ির খবরটা ফাঁস করেছেন রিয়াল মাদ্রিদ প্রধান কোচ  জিনেদিন জিদান। তার দাবি রিয়ালে খেলার স্বপ্ন অনেকদিন ধরেই লালন করে আসছেন এমবাপ্পে। ফরাসি সেনসেশনও এনিয়ে আভাস দিয়েছেন। তাতে অবশ্য বেশ চটেছে ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ান চ্যাম্পিয়নরা।

এমবাপ্পেকে রিয়ালে উড়িয়ে আনার জন্য জিদান চেষ্টা করছেন। এই প্রচেষ্টায় জিজু সঙ্গী হিসেবে পেলেন শিষ্য ইডেন হ্যাজার্ডকে।  বেলজিয়ান সেনসেশন জানালেন সুযোগ থাকলে এমবাপ্পেকে সতীর্থ হিসেবে পেতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবেন তিনি। পিএসজি ফরওয়ার্ড রিয়ালে এলে হ্যাজার্ড খুব খুশি হবেন।

cavani mbappe neymar psg

রোববার ফরাসি গণমাধ্যম লা প্যারিসিয়ানকে হ্যাজার্ড বলেছেন, ‘একজন ফুটবলার সবসময়ই সেরা জায়গায় খেলার স্বপ্ন দেখে। যদি আগামীকাল কিলিয়ানকে আমি আনতে (রিয়াল মাদ্রিদে) পারি তাহলে অবশ্যই চেষ্টা করব। তবে আমি জানি না এনিয়ে কেউ আমার কাছে মতামত জানতে চাইবে কিনা।’

বয়স মাত্র কুড়ি। এই বয়সেই ১০টি মৌলিক শিরোপা জেতা হয়ে গেছে তার। এর মধ্যে আছে স্বপ্নের বিশ্বকাপ ট্রফিও। হ্যাজার্ড যথার্থই বললেন, ‘এমবাপ্পে যেভাবে ট্রফি জিতে চলছে সেটা অব্যাহত থাকলে একদিন সর্বকালের সেরা একজন হয়ে যাবে।’

হ্যাজার্ডের বিশ্বাস ভবিষ্যতে ফুটবলের ঝাণ্ডা থাকবে এমবাপ্পের হাতে। তিনি বলেছেন, ‘ও (এমবাপ্পে) প্রতিভাবান একজন ফুটবলার। আমি নিশ্চিত কয়েক বছরের মধ্যেই ও বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় হবে।’

sheikh mujib 2020