advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 23 মিনিট আগে

গুরু-শিষ্যের দ্বন্দের গুঞ্জন নিয়ে জল কম ঘোলা হয়নি। একটা পর্যায়ে মুখ খুলেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। জানিয়ে দেন আসলেই ইনজুরিতে ভুগছিলেন তিনি। এ কারণেই পুরো সময় তাকে খেলাননি জুভেন্টাসের প্রধান কোচ মাওরিসিও সারি।

maurizio sarri cristiano ronaldo juventus atletico madrid

রোনালদো যথারীতি ফিট হয়ে মাঠে ফিরেছেন। রোববার সাস্যুলোর বিরুদ্ধে গোল করে জুভেন্টাসকে বাঁচিয়েছেন হারের হাত থেকে। শিষ্যের পারফরম্যান্সে ভীষণ খুশি হয়েছেন সারি। ইতালিয়ান কোচ জানিয়ে দেন ব্যালন ডি’অর জয়ে তার বাজির ঘোড়া শিষ্য রোনালদোই।

গুরু-শিষ্যের এমন সম্পর্ক দেখে কে বলবে দুজনের মধ্যে বড় একটা সমস্যা চলছে। সোমবার এমনই একটা বিস্ফোরক দাবি করে বসলেন ইতালির সাবেক ফুটবলার অ্যান্তনিও ক্যাসানো। প্রচারমাধ্যমকে তিনি বলে দিলেন, ‘সারির সঙ্গে ক্রিশ্চিয়ানোর অনেক বড় একটা ঝামেলা চলছে।’

জুভেন্টাসের জার্সিতে পরপর দুই ম্যাচে দ্বিতীয়ার্ধে রোনালদোকে মাঠ থেকে তুলে নেন সারি। এই হতাশা নিয়ে জাতীয় দলে ফিরেই দুর্দান্ত এক হ্যাটট্রিক করে দুঃসময়কে জবাব দেন। ওই ম্যাচে ইনজুরি নিয়েই পুরো দেড় ঘণ্টা খেলেছেন পর্তুগিজ সেনসেশন।

চোটের কারণে জুভেন্টাসের পরবর্তী ম্যাচে বিশ্রাম দেওয়া হয় রোনালদোকে। সাস্যুলো ম্যাচে তাকে ফেরানো হলো। এদিন পুরো সময়ই খেললেন তিনি। সবকিছু যখন ঠিকঠাকভাবে চলা শুরু করল তখনই গুরু-শিষ্যের সম্পর্কে আগুনে ঘি ঢালার চেষ্টা চালাচ্ছেন ক্যাসানো। তবে নির্দিষ্ট করে কিছুই বলেননি তিনি।

টিকিটাকাকে ইতালিয়ান প্রাক্তন ফুটবলার বলেছেন, ‘আমার মনে হয় রোনালদোর সঙ্গে সারির একটা বড় দ্বন্দ্ব চলছে। যার শুরুটা হয়েছে দুই ম্যাচে রোনালদোকে মাঠ থেকে তুলে নেওয়ায়। এমন ঘটনা যে কোনো খেলোয়াড়ের জন্যই বিরক্তিকর। রোনালদোর শারীরী ভাষাতেও তা বোঝা গেছে।’

sheikh mujib 2020