advertisement
আপনি দেখছেন

ম্যাচ জয়ের কোনো চাপ ছিল না। ছিল না গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার তাড়নাও। মঙ্গলবার রাতে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচে ইন্টার মিলানের বিপক্ষে নির্ভার ছিল বার্সেলোনা। স্বভাবতই আনুষ্ঠানিকতার ম্যাচে তারকা খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দিয়েছিলেন দলটির প্রধান কোচ এরনেস্তো ভালভার্দে।

fati makes another history

মেসিদের অনুপস্থিতির পরও সান সিরোতে বিগ ম্যাচে ইন্টার মিলানকে ২-১ গোলে হারিয়ে দিল বার্সেলোনা। জিতেও অবশ্য খুব একটা লাভ হয়নি তাদের। তবে সর্বনাশ হয়ে গেল ইন্টার মিলানের। ঘরের মাঠে বাঁচা-মরার লড়াইয়ে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিল ইতালিয়ান লিগে শীর্ষে থাকা দলটি।

ছয় ম্যাচে সর্বোচ্চ ১৪ পয়েন্ট নিয়ে মৃত্যুকূপ খ্যাত ‘এফ’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বার্সেলোনা। শেষ ষোলোতে কাতালানদের সঙ্গী হয়েছে ১০ পয়েন্ট নিয়ে রানার্সআপ নিশ্চিত করা বরুসিয়া ডর্টমুন্ড। প্রত্যাশিত জয় দিয়েই নক আউট পর্বের টিকিট কেটেছে জার্মান জায়ান্টরা।

কাল রাতে নিজেদের মাঠ সিগনাল ইদুনা পার্কে স্লাভিয়া প্রাগকে ২-১ গোলে হারিয়েছে ডর্টমুন্ড। কিন্তু স্বাগতিকদের জয় ও শেষ ষোলোতে ওঠার আনন্দ অনেকটাই ফিকে হয়ে গেছে। কারণ ম্যাচটা তাদের শেষ করতে হয়েছে দশজনের দল নিয়ে। শেষের ১৫ মিনিট একজন  কম প্রতিপক্ষ পেয়েও হার ঠেকাতে পারল না স্লাভিয়া প্রাগ।

ডেথগ্রুপের শেষের সমীকরণের জন্য চোখ ছিল ইন্টার মিলান-বার্সেলোনা মহারণের দিকে। ম্যাচটাও জমে উঠেছিল। প্রথমার্ধেই দুই দল করেছে দুই গোল। ম্যাচটা ড্রয়ের ইঙ্গিত দিয়েছিল। কিন্তু বেঞ্চ ছেড়ে উঠে এসেই লিগের সর্বকনিষ্ঠ ফুটবলার হিসেবে গোল করে বার্সাকে জেতালেন ১৭ বছর বয়সী আনসু ফাতি।

নিয়মরক্ষার ম্যাচে কার্লোস পেরেজকে অভিষেক করিয়েছেন বার্সা কোচ। স্প্যানিশ কোচের আস্থার প্রতিদান দিয়েছেন পেরেজ। ২৩ মিনিটে তার গোলের ওপর দাঁড়িয়ে ইন্টার মিলানের বিরুদ্ধে লিড নিয়েছিল বার্সা। যদিও প্রথমার্ধের শেষ দিকে রোমেলু লুকাকুর গোলে সমতায় ফেরে ইন্টার। কিন্তু শেষাবধি বৃথা গেল বেলজিয়ান স্ট্রাইকারের দুর্দান্ত গোলটা।