advertisement
আপনি দেখছেন

দারুণ ছন্দে আছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। গোল করেই চলছেন পর্তুগিজ যুবরাজ। ধন্দের ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার রাতেও গোলের নিশ্ছিদ্র পথে হাঁটলেন ‘সিআর সেভেন’। গোল করলেন আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার পাওলো দিবালা-ও। এই দুজনের পারফরম্যান্সে সিরি’এ লিগে সাম্পদোরিয়ার মাঠে ২-১ গোলে জিতেছে জুভেন্টাস।

ronaldo and dybala celebrating a goal 1

এই জয়ে ইন্টার মিলানকে টপকে আবারো লিগ টেবিলের শীর্ষে উঠে এলো তুরিনের বুড়িরা। ১৭ ম্যাচে ৪২ পয়েন্ট তাদের। এক ম্যাচ কম খেলে তিন পয়েন্ট পিছিয়ে দুইয়ে নেমেছে ইন্টার মিলান। তাদের পেছনে আছে যথাক্রমে লাৎসিও (৩৬), রোমা (৩২) ও কালিয়ারি (২৯)। তিনটি দলই ইন্টার মিলানোর মতো একটি করে ম্যাচ কম খেলেছে।

সাম্পদোরিয়ার মাঠে ১৯ মিনিটে জুভেন্টাসকে লিড এনে দেন দিবালা। ইতালিয়ান সিরি’এ লিগের চলতি আসরে এটা আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকারের পঞ্চম গোল। কিন্তু দিবালার সৌজন্যে প্রাপ্ত গোলের অগ্রগামিতা খুব বেশি সময় ধরে রাখতে পারেনি অতিথিরা। ৩৫ মিনিটে ভুল করে বসেন ডিফেন্ডাররা। পারেননি বল বিপদমুক্ত করতে। ফাঁকায় বল পেয়ে জুভেন্টাসের জাল কাঁপান জানলুকা কাপরারি (১-১)।

দশ মিনিট বাদেই ফের উচ্ছ্বাসে মেতে ওঠে তুরিনের বুড়িরা। প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে অ্যালেক্স সান্দ্রোর ক্রস থেকে শূন্যে ভেসে দুর্দান্তভাবে মাথা ছুঁয়ে গোল করেন রোনালদো। লিগের চলতি আসরে এনিয়ে দশমবার জালের ঠিকানা খুঁজে পেলেন পর্তুগিজ উইঙ্গার। সবমিলিয়ে এই মৌসুমে এটা রোনালদোর দ্বাদশ গোল।

রোনালদোর দুর্দান্ত গোলটাই শেষ পর্যন্ত ম্যাচের ভাগ্য জুভেন্টাসের পক্ষে নির্ধারণ করে দিয়েছে। লিগে টানা আটবারের চ্যাম্পিয়নদের এটা ১৩তম জয়। ঘরের মাঠে সাম্পদোরিয়ার হারের হতাশার সঙ্গে যোগ হয়েছে কাপরারির লাল কার্ড। ম্যাচের শেষ মুহূর্তে দশজনের দলে নেমে আসে সাম্পদরিয়া।

তবে মঞ্চটা সাজানো হয়েছিল জুভেন্টাস গোলরক্ষক জিয়ানলুইজি বুফনের জন্য। এদিন সিরি’এ লিগে সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলা পাওলো মালদিনিকে (৬৪৭) ছুঁয়েছেন কিংবদন্তি এই গোলরক্ষক। মালদিনিকে ছোঁয়ার ম্যাচে গোলবার অক্ষত রাখতে পারেননি তিনি। তাবে খুব একটা হয়নি জুভেন্টাসের। বুফনের ম্যাচটা রাঙিয়ে দিয়েছেন রোনালদোরা; বিশেষ ম্যাচে সতীর্থ শেষ প্রহরীকে উপহার দিয়েছেন দারুণ একটা জয়।