advertisement
আপনি দেখছেন

এই মুহূর্তে বিশ্বের সেরা কজন কোচদের একজন জিনেদিন জিদান। রিয়াল মাদ্রিদের ডাগ আউটে অভিষেকের পর থেকেই রাঙিয়ে চলছেন তিনি। লস ব্ল্যাঙ্কোসদের টানা তিনবার উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা জিতিয়েছেন জিজু। ইতিহাসের কোনো কোচেরই এমন হ্যাটট্রিকের নজির নেই।

zidane and deschamps

এই জিদান বড্ড অভিমানী। চলে গিয়েছিলেন প্রিয় ক্লাব ছেড়ে। ফরাসি কোচ মান ভাঙিয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদ সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ। জিদান ফিরে আসেন প্রিয় চত্ত্বর সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে; দ্বিতীয় মেয়াদে দায়িত্ব নেন মাদ্রিদ জায়ান্টদের। দ্বিতীয়বার ক্লাবে ফিরেই একটা আভাস দিয়েছিলেন তিনি।

জিদান জানিয়েছিলেন সুযোগ আসলে অবশ্যই তিনি জাতীয় দল ফ্রান্সের কোচ হবেন। এই স্বপ্নপূরণের লক্ষ্যে রিয়াল কোচ প্রথম সমর্থনটা পেলেন সাবেক সতীর্থ ও ফ্রান্সের বর্তমান প্রধান কোচ দিদিয়ের দেশাম। বিশ্বজয়ী কোচ জানালেন ভবিষ্যতে ফ্রান্সের কোচ হবেন জিদান।

এই জিদানকে খুব কাছ থেকে দেখেছেন দেশাম। ১৯৯৮ সালে ফ্রান্সের প্রথম বিশ্বকাপ স্বপ্নপূরণে দুজনই খেলেছেন কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে। দেশকে এনে দিয়েছেন সোনালি ট্রফি। ওই সময় জিদানের অধিনায়ক ছিলেন দেশাম। জিজুর সম্পর্কে তার চেয়ে আর ভালো কেই বা জানেন!

সেই পর্যবেক্ষণ থেকেই শুক্রবার দেশাম বললেন, ‘ফ্রান্সের পরবর্তী কোচ হতে পারেন জিজু (জিদান)। আজ অথবা কাল, তিনিই হবেন (ফ্রান্সের প্রধান কোচ)।’ কেন উত্তরসূরি হিসেবে সাবেক সতীর্থকে পছন্দ করেছেন দেশাম সেটা না বললেই চলে। খেলোয়াড়ি জীবনে নিজেকে কিংবদন্তির কাতারে নিয়ে যাওয়া জিদান কোচ হিসেবেও ইতোমধ্যে উঠে গেছেন অনন্য উচ্চতায়। এমন একজনের হাতে ফ্রান্সের দায়িত্বটা দেওয়াই যায়।