advertisement
আপনি দেখছেন

আগের ম্যাচে হেলাস ভেরোনার মাঠে হার জুভেন্টাসের। তুরিনের বুড়িদের হারের ফায়দা নিয়েছিল ইন্টার মিলান। প্রত্যাশিত জয় দিয়ে ইতালিয়ান সিরি’এ লিগ টেবিলের শীর্ষে উঠে যায় তারা। যদিও টেবিলের চূড়ায় তিন দিনের বেশি থাকা হলো না ইন্টার মিলানের। তাদের টপকে আবারো শীর্ষে ফিরেছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস।

dybala celebrates a goal 2020

রোববার রাতে অবনমনের শঙ্কায় থাকা ব্রেসিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়েছে তুরিনের বুড়িরা। ম্যাচটা আবার পুঁচকে ব্রেসিয়া শেষ করেছে দশ জনের দল নিয়ে। এই ম্যাচে অবশ্য জুভেন্টাস দলে ছিলেন না প্রাণভোমরা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। পর্তুগিজ তারকাকে বিশ্রাম দিয়েছিলেন দলটির প্রধান কোচ মারিসিও সারি।

ঘরের মাঠ এলিয়েঞ্জ স্টেডিয়ামে রোনালদোর অভাবটা বুঝতেই দেননি সতীর্থরা। তুরিনে দুই অর্ধে দুই গোলে ‍জুভদের সহজ জয় নিশ্চিত করেন আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার পাওলো দিবালা ও কলম্বিয়ান ফরওয়ার্ড হুয়ান কুয়াদ্রাদো। প্রথমার্ধে দিবালার গোলে স্বাগতিকরা এগিয়ে যাওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে ব্যবধান বাড়ান কুয়াদ্রাদো।

ম্যাচটার ভাগ্য নির্ধারণ হয়ে গেছে ৩৭ মিনিটে। অ্যারন র‌্যামসেকে ফাউল করে দ্বিতীয়বার হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন ব্রেসিয়া ফরওয়ার্ড ফ্লোরিয়ান আইয়া। এরপরই ফ্রি-কিক থেকে দিবালার দুর্দান্ত গোল। ৭৫ মিনিটে জুভদের দ্বিতীয় গোল কুয়াদ্রাদোর পা থেকে। তাতেই নিশ্চিত হয়ে যায় লিগের এই মৌসুমে জুভদের ১৮তম জয়।

সহজ জয়ের ম্যাচে জুভেন্টাসের আরো একটা প্রাপ্তি আছে। ইনজুরি কাটিয়ে ছয় মাস পর এদিন যে মাঠে ফিরেছেন দলটির অধিনায়ক জর্জিও কিয়েলিনি! ম্যাচের শেষ দিকে লিওনার্দো বনুচ্চির পরিবর্তিত হিসেবে মাঠে নামেন এই ডিফেন্ডার।

এই জয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষে ফিরেছে জুভেন্টাস। ২৪ ম্যাচে ৫৭ পয়েন্ট তাদের। কাল রাতে শীর্ষে ফেরার সুযোগ ছিল ইন্টার মিলানের। কিন্তু লাৎসির মাঠে ২-১ গোলে হেরে সুযোগ হাতছাড়া করেছে সান সিরোর দলটি। তাতে জুভেন্টাসের জয়ের আনন্দ বেড়ে হয়েছে দ্বিগুণ। ইন্টারকে হারিয়ে ৫৬ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে উঠে এসেছে লাৎসিও। ৫৪ পয়েন্ট নিয়ে তিনে নেমে গেছে ইন্টার মিলান।