advertisement
আপনি দেখছেন

ফিফা ট্রান্সফার নীতিমালা ও অর্থিক কেলেঙ্কারির জের ধরে ইউরোপিয়ান শীর্ষস্থানীয় ক্লাব প্রতিযোগিতায় দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। এনিয়ে মহা বিপর্যয়ে আছে পেপ গার্দিওলার দল। এই মৌসুমে অবশ্য খেলতে বাধা নেই ইংলিশ ক্লাবটির। যদিও দুঃস্বপ্নের ঘোর কাটিয়ে উঠতে পারছে না সিটিজেনরা।

guardiola real madrid

কঠিন সময়ে অগ্নিপরীক্ষার মুখোমুখি গার্দিওলার দল। আগামীকাল বুধবার উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের প্রি কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে রিয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হবে সিটি। টুর্নামেন্টের ইতিহাসে সবচেয়ে সফল দলটার বিরুদ্ধে ম্যাচটাকে নিজেদের শক্তির আসল পরীক্ষার মঞ্চ বলে মত দিলেন সিচি কোচ গার্দিওলা।

খেলোয়াড়ি এবং পেশাদার কোচিং ক্যারিয়ারের রিয়াল মাদ্রিদ গার্দিওলার কাছে পরিচিত এক নাম। ঘুরে ফিরে আবারো সেই দলটার মুখোমুখি স্প্যানিশ কোচ। এবার বার্সার বদলে সিটির প্রতিনিধিত্ব করতে যাচ্ছেন তিনি। সেই অভিজ্ঞতা থেকেই গার্দিওলা বলেছেন, ‘খেলোয়াড় এবং কোচ হিসেবে অনেকবার ওদের মুখোমুখি হয়েছি। এই দলটাকে আমি সবসময়ই সমীহ করি। আমি জানি তাদের বিরুদ্ধে খেলা কতটা কঠিন।’

রিয়ালকে সমীহ করে সিটির স্প্যানিশ কোচ গার্দিওলা আরো বলেছেন, ‘আমরা জানি ওরা অসংখ্যবার টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলেছে। কতবার ওরা শিরোপা জিতেছে আমি জানি। আমাদের দলে ক্লদিও ব্রাভো ছাড়া কেউ নেই। একমাত্র ওরই ট্রফি জয়ের অভিজ্ঞতা রয়েছে।  তবে আমরা আশাবাদী। নিজেদের সামর্থ্যে আস্থা আছে আমাদের। আমরা ১৮০ (দুই লেগ মিলিয়ে) মিনিট চেষ্টা করব। এটাই আমাদের আসল পরীক্ষা। আমরা টুর্নামেন্টের ইতিহাসে সেরা দলটার মুখোমুখি হতে যাচ্ছি।

সিটির জন্য নির্মম তথ্য হচ্ছে টুর্নামেন্টের ইতিহাসে কখনোই রিয়ালকে হারাতে পারেনি তারা। চারবারের সাক্ষাতে দুবারই হেরেছে সিটিজেনরা। ড্র করেছে অন্য দুই ম্যাচে। রিয়াল বাধা পেরোনোর আগে তবু স্বপ্ন দেখে যাচ্ছেন গার্দিওলা, ‘এটা আমাদের আসল পরীক্ষা। আমরাও চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ের স্বপ্ন দেখছি। আজ বা কাল এই দলটাকে আমাদের মোকাবেলা করতে হবে। সেটা হতে পারে টুর্নামেন্টের যো কোনো পর্যায়েই। চ্যাম্পিয়ন হতে হলে আপনাকে জিততে হবে রিয়াল মাদ্রিদ, বায়ার্ন মিউনিখ কিংবা বার্সেলোনার মতো দলকে।’