advertisement
আপনি দেখছেন

রোনালদিনহো নামটা চোখের সামনে ভেসে এলেই মনে পড়ে এক ফুটবল শিল্পীর কথা। যে শিল্পী নিজের পায়ের জাদুতে বিমোহিত করেছেন ফুটবল দুনিয়া। এই তারকা সাবেক ফুটবলার এখন রয়েছেন প্যারাগুয়ের কারাগারে। জাল পাসপোর্ট নিয়ে প্রবেশ দেশটিতে প্রবেশ করায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাকে। গ্রেপ্তার হয়েছেন তার ভাইও।

1ronaldinho

গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, বুধবার রোনালদিনহোর হোটেল রুমে তল্লাশি চালিয়ে জাল পাসপোর্ট ও অন্যান্য ভুয়া কাগজপত্র পাওয়া যায়। প্যারাগুয়ের অভিবাসন ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ও ভুয়া কাগজপত্র পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। শনিবার তাকে আদালতে তোলা হয়। আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাকে জেলে পাঠানের আদেশ দেন

ব্রাজিলিয়ান এই সুপারস্টারের কাছে যে পাসপোর্ট পাওয়া গেছে তাতে তার নাম, জন্মস্থান এবং জন্মতারিখ- সবই ঠিকই আছে। কেবল নাগরিকত্বের জায়গায় ব্রাজিলের বদলে প্যারাগুয়ে বসানো হয়েছে। কেন এমন লুকোচুরির আশ্রয় নিতে হলো এই গ্রেটকে? এমন প্রশ্নের উত্তরে জানা যায়, ২০১৮ সালের নভেম্বরে রোনালদিনহো তার ব্রাজিলিয়ান পাসপোর্ট হারিয়েছেন।

অনুমতি ছাড়া একটি চিনির কল স্থাপনের কারণে তাকে ২৩ লাখ ডলার জরিমানা করা হয়েছিল এবং পাসপোর্ট জব্দ করা হয়। জরিমানা নিতে গিয়ে দেখা গেল তার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে আছে মাত্র ৬ ডলার ৫৯ সেন্ট! জরিমানা দিতে না পারায় রোনালদিনহো পাসপোর্টও আর ফিরে পাননি। ফলে বিদেশ ভ্রমণের উপায়ও বন্ধ হয়ে যায়।

নিজের পরিচয় লুকিয়ে প্যারাগুয়েতে গিয়েছিলেন একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠানের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে। খেলোয়াড়ি জীবনে ব্রাজিলের বড় তারকা ছিলেন রোনালদিনহো। ২০০২ সালে দেশের হয়ে জিতেছেন বিশ্বকাপ। খেলেছেন বার্সেলোনা, প্যারিস সেন্ট জার্মেই, এসি মিলানের মতো নামিদামি ক্লাবে।

sheikh mujib 2020