advertisement
আপনি পড়ছেন

লা লিগায় শিরোপা ধরে রাখতে অবশ্যই জিততে হবে এমন পরিস্থিতিতে দেপোর্তিভো লা করুনাকে গোল বন্যায় ভাসিয়েছে বার্সেলোনা। দেপোর্তিভোকে তাদের মাঠে গুনে গুনে দুই হালি গোল দিয়েছে লুইস এনরিকের শিষ্যরা। এর মধ্যে উরুগুয়ের স্টাইকার লুইস সুয়ারেজ একাই দেন ৪ টি গোল।

barcelona yellow

গত মৌসুমের সবচেয়ে সফল ক্লাবটি এ বছর যেন খেই হারিয়ে ফেলেছে। লা লিগায় টানা তিন ম্যাচে পরাজয় বরণ করতে হয়েছে মেসি-নেইমারদের। তবে দেপোর্তিভোকে পেয়ে যেন জ্বলে উঠলো বার্সেলোনা। বুধবার রাতে দেপোর্তিভোকে তাদের মাঠে ৮-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে হারায় কাতালানরা। লা লিগায় এর আগের ম্যাচে বার্সোলোনার ঘরের মাঠে বার্সাকে ২-২ গোলে রুখে দেয় দেপোর্তিভো।

ম্যাচের একাদশ মিনিটে মেসির জোরালো শট কর্নারের মাধ্যমে ঠেকান গোলরক্ষক। তবে রাকিতিচের নেওয়া কর্নার থেকে ফাঁকায় দাঁড়িয়ে থাকা সুয়ারেস গোল করতে ভুল করেননি। এটি তার টানা ৩য় ম্যাচ পর প্রাপ্ত গোল।

তবে ১৯তম মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ হারায় দেপোর্তিভো। গোলরক্ষককে একা পেয়েও গোল করতে পারেননি সেলসো বর্হেস। তবে ২৪তম মিনিটে মেসির দুর্দান্ত পাসে ব্যবধান দ্বিগুন করেন সুয়ারেস।

২-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় বার্সা। বিরতি থেকে ফিরেই মাত্র ২ মিনিটের মাথায় সুয়ারেসের ক্রসে গোল করে  ক্রোয়েশিয়ার মিডফিল্ডার রাকিতিচ। এরপর ৫৩তম মিনিটে নিজের হ্যাট্রিক এবং ৬৪ তম মিনিটে ৪র্থ গোল করেন সুয়ারেজ। মেসির দুর্দান্ত বাড়ানো বলে হ্যাটট্রিক পূরণ করেন সুয়ারেস। পরের গোলটি বড় অবদান রাখেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার। ৪ টি গোল করার মধ্য দিয়ে লা লিগার এই মৌসুমে ৩০টি গোল পূর্ণ করেন তিনি। সুয়ারেসের সামনে ৩১ গোল করে শুধুই রোনাল্দো।

বার্সার গোল উৎসবের রাতে ৭৩তম মিনিটে গোলের দেখা পান মেসি। লা লিগায় মেসির এটা ২৪তম গোল। এরপর একক প্রচেষ্টায় গোল করেন বদলি খেলোয়াড় মার্ক বার্ত্রা। ৮১তম মিনিটে ৫ ম্যাচ পর গোলের দেখা পান নেইমার। লা লিগায় এটি নেইমারের ২২তম গোল।

দুর্দান্ত জয়ে ৩৪ ম্যাচে ৭৯ পয়েন্ট নিয়ে সবার উপরে লুইস এনরিকের শিষ্যরা।

 

আপনি আরো পড়তে পারেন

শিরোপা ধরে রাখতে মাঠে নামছে বার্সেলোনা

'ট্রেবল' থেকে 'ট্রাবল': এ বছর সব হারাবে বার্সা?

অাগুয়েরোর হ্যাটট্রিকে উড়ে গেল চেলসি

র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে মেসির আর্জেন্টিনা