advertisement
আপনি দেখছেন

কয়েক দিন আগে আভাস দিয়েছিলেন। অবশেষে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিলেন ম্যানচেস্টার সিটির প্রধান কোচ পেপ গার্দিওলা। বুধবার রাতে স্প্যানিশ কোচ জানিয়েছেন, এই মৌসুম শেষে আর সিটিতে থাকছেন না লিরয় সানে। জার্মান মিডফিল্ডার ফিরে যাচ্ছেন স্বদেশি ক্লাব বায়ার্ন মিউনিখে। ঘরে ফেরার আগে শিষ্যকে নিরন্তর ভালোবাসা জানিয়েছেন স্প্যানিশ কোচ।

leroy sane manchester city

বৃহস্পতিবার ঘরের মাঠে লিভারপুলের মুখোমুখি হবে ম্যানচেস্টার সিটি। এই ম্যাচের সাংবাদিক বৈঠকে সানের দলবদল প্রসঙ্গে গার্দিওলা বলেছেন, ‘ও মিউনিখে যেতে চায়। বায়ার্ন মিউনিখের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। খুঁটিনাটি কিছু বিষয় বাকি আছে। বৃহস্পতিবার সবকিছু চূড়ান্ত হয়ে যাবে। আমরা ওর (সানে) উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করছি। আমাদের সঙ্গে এতদিন থাকার জন্য ওকে ধন্যবাদ।’

গার্দিওলা আরো বলেছেন, ‘বায়ার্ন মিউনিখ চমৎকার একটা দল। এটা ওর জন্য নতুন একটা শুরু। আসলে ও এখানে থাকতে চাচ্ছিল না, চলে যেতে চাইছিল। প্রত্যেকেরই তার নিজের জীবন ও ক্যারিয়ার নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার রাখে। ও থাকলে আমি অনেক খুশি হতাম। কিন্তু ওর মনে হয়েছে যে, অন্যখানে আরো ভালো করবে, বেশি সুখে থাকবে।’

pep guardiola manchester city

২০১৪ সালে বুন্দেসলিগার দল শালকে জিরো ফোরের জার্সিতে ক্যারিয়ার শুরু করেন সানে। দুই বছর পরই তাকে উড়িয়ে আনে ম্যানচেস্টার সিটি। এখানে চার বছর ভালোই কেটেছে তার। তবু দেশে ফিরতে চাইছিলেন তিনি। জার্মান ফুটবলে তার প্রত্যাবর্তন হচ্ছে বায়ার্ন মিউনিখের হয়ে। বাভারিয়ানদের সঙ্গে পাঁচ বছরের চুক্তি হতে যাচ্ছে তার। চুক্তির অংকটা ৪৯ মিলিয়ন ইউরো।

ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে এ পর্যন্ত ১৩৫টি ম্যাচ খেলেছেন সানে। ২৪ বছর বয়সী তারকার ব্যক্তিগত অর্জন ৩৯ গোল ও ৪৫টি অ্যাসিস্ট। সিটি অধ্যায়ে জার্মান মিডফিল্ডার জিতেছেন দুটি ইংলিশ লিগ শিরোপা, দুটি ইংলিশ লিগ কাপ ও একটি এফএ কাপ।

sheikh mujib 2020