advertisement
আপনি দেখছেন

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ভুতুড়ে একটা রাউন্ড শেষ হলো। এই রাউন্ডে জয় পেল না শীর্ষ পাঁচ দলের চারটিই। ফেভারিটদের মধ্যে কেবল জিতেছে ম্যানচেস্টার সিটি। আর উত্তর লন্ডন ডার্বিতে টটেনহাম হারিয়েছে আর্সেনালকে। তবে পয়েন্ট খুইয়েছে লিভারপুল, লেস্টার সিটি, চেলসি, এভারটনের মতো বড় দলগুলো। তাদের তালিকায় এবার যুক্ত হলো ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের নাম।

anthony martial man utd 1

অবশ্য হার-জিত খেলারই অংশ। কিন্তু লেস্টার সিটি, চেলসি ও এভারটন যেভাবে বিধ্বস্ত হয়েছে তাতে লিগের ৩৫তম রাউন্ডটা মহাঅঘটনের একটা রাউন্ড হয়ে থাকল। সবশেষ বাকি ছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। সোমবার রাতে এই দলটা আবার সাউদ্যাম্পটনের সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করেছে। তাও আবার ঘরের মাঠ ওল্ড ট্রাফোর্ডে! লিগে আগেরবারের দেখাতেও ম্যানইউকে জিততে দেয়নি সাউদ্যাম্পটন।

এতগুলো বড় দলের হোঁচট খাওয়ার নজির এই মৌসুমে এবারই প্রথম। ম্যানইউ যে পয়েন্ট হারাতে পারে সেটার আভাস মিলেছে ম্যাচের শুরুতেই। ১২ মিনিটে তাদের জালে বল জড়ান আর্মস্ট্রং। যদিও আট মিনিটের মধ্যে সমতায় ফিরে আসে ম্যানইউ। স্বাগতিকদের সমতায় ফেরান মার্কাস রাশফোর্ড। তিন মিনিট পর অ্যান্তনি মার্শিয়ালের গোলে লিড নেয় ম্যানইউ।

michael obafemi celebrations

ফরাসি তারকার গোলের ওপর দাঁড়িয়ে জয়ের স্বপ্ন দেখছিল রেড ডেভিলসরা। কিন্তু অঘটনের রাউন্ডে রাহুর দশা থেকে বাঁচতে পারল না তারাও। ম্যাচের শেষ মুহূর্তে জয় হাতছাড়া হয়ে গেল ম্যানইউর। দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ে স্কোর লাইন ২-২ করে বসেন সাউদ্যাম্পটন ফরওয়ার্ড ওবাফেমি। ব্যস, জিততে জিততে ড্র করল ওলে গানার সুলশারের দল।

এই ড্রয়ে লিগ টেবিলের তিনে ওঠার সুযোগ হাতছাড়া করল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ৫৯ পয়েন্ট নিয়ে তাই পাঁচেই থাকল লিগের ইতিহাসে সবচেয়ে সফল দলটি। তাদের সমান পয়েন্ট থাকা সত্ত্বেও গোলগড়ে এগিয়ে চারে থাকল লেস্টার সিটি। ৬০ পয়েন্ট নিয়ে তিনে আছে চেলসি। দুইয়ে থাকা ম্যান সিটির সংগ্রহ ৭২ পয়েন্ট।

৯৩ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে আছে চ্যাম্পিয়নশিপ নিশ্চিত করা লিভারপুল। আর ম্যানইউকে রুখে দেওয়া সাউদ্যাম্পটন ৪৫ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বাদশতম স্থানে আছে।

sheikh mujib 2020