advertisement
আপনি দেখছেন

ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানের পুরো মৌসুম খেলতে হয়নি প্যারিস সেন্ট জার্মেইকে (পিএসজি)। করোনাভাইরাস মহামারির কারণে লিগের ২৮তম রাউন্ডে শেষ হওয়ার আগেই তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয় লিগ শিরোপা। দীর্ঘ চার মাসের বিরতি দিয়ে মাঠে ফিরেই পিএসজি জিতেছে ফ্রেঞ্চ কাপের ট্রফি। সেদিন চ্যাম্পিয়ন হতে গিয়ে কিলিয়ান এমবাপ্পেকে হারিয়েছিল পিএসজি।

psg french league cup celebration 2020

চোট নিয়ে মাঠের বাইরে ছিটকে যান ফরাসি সেনসেশন। কাল তাকে ছাড়া ফ্রেঞ্চ লিগ কাপে অগ্নিপরীক্ষাই দিতো হলো নেইমারদের। দুই ঘণ্টার স্নায়ুক্ষয়ী লড়াই শেষে গোলই করতে পারেনি পিএসজি। নির্ধারিত দেড় ঘণ্টার পর অতিরিক্তি ত্রিশ মিনিটেও তাদের গোলশূন্য ব্যবধানে রুখে দেয় অলিম্পিক লিওঁ। শেষ পর্যন্ত টাইব্রেকারে হলো বাজিমাত।

শুক্রবার রাতে পেনাল্টি লড়াইয়ের আগ মুহূর্তে ১০ জনের দলে পরিণত হয় লিওঁ। পরে নাটকীয় টাইব্রেকারে লিওঁকে ৬-৫ গোলে হারিয়েছে পিএসজি। দুই দল প্রথম পাঁচ শটে গোল করলে ম্যাচ গড়ায় সাডেন ডেথ পেনাল্টিতে। ‘ডু অর ডাই’ শটের প্রথমটাই মিস করে লিওঁ। গোল ঠেকান রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক গোলরক্ষক কেইলর নাভাস। সুযোগ কাজে লাগাতে ভুল করেনি পিএসজি। স্পট কিক থেকে জাল কাঁপিয়ে গ্যালারিতে উপস্থিত পাঁচ হাজার দর্শকের সামনে উৎসবে মেতে ওঠে পিএসজি।

psg french league cup celebration

এই জয়ে ঘরোয়া ফুটবলে ট্রেবল ‘ট্রেবল’ জিতে মৌসুম শেষ করলেন নেইমাররা। সবমিলিয়ে চতুর্থবার এই কীর্তি গড়ল পিএসজি। তবে আসল ‘ট্রেবল’ই এখনো জেতা হয়নি তাদের। কারণ ঘরোয়া ফুটবলে একচেটিয়া দাপট দেখানো পিএসজি উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে কখনো শিরোপা জিততে পারেনি। এবারো অবশ্য সম্ভাবনা জাগিয়েছে পিএসজি।

কিন্তু তাদের একটা আশঙ্কার মধ্যে ফেলে দিয়েছেন এমবাপ্পে। চোট নিয়ে মাঠের বাইরে আছেন তিনি। আগামী সপ্তাহে চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে তার মাঠে নামা নিয়ে রয়েছে ঢের সংশয়। প্রতিদ্বন্দ্বী আটালান্টা অবশ্য পূর্ণ শক্তির পিএসজিকে পেতে চায়। পিএসজি কোচ টমাস টুখেলও এমবাপ্পের জাদুকরি ফেরার প্রতীক্ষায় রয়েছেন।

ফ্রেঞ্চ লিগ কাপে এটা পিএসজির নবম শিরোপা। সাফল্যের বিচারে যা সর্বোচ্চ ট্রফি জয়ের নজির। দ্বিতীয় সফল দল স্ট্রাসবার্গ চারবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। এই দলটা গত মৌসুমের শিরোপা জিতেছিল। এ ছাড়া তিনটি করে শিরোপা জিতেছে অলিম্পিক মার্শেই ও বোর্দে। আর দ্বিতীয় ট্রফির জন্য ১৯ বছর ধরে অপেক্ষা করতে হচ্ছে লিওঁকে।

sheikh mujib 2020