advertisement
আপনি দেখছেন

পেশাদার ফুটবলের সিংহভাগ সময় রিয়াল মাদ্রিদেই কাটান ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। নিজের গড়া অসংখ্য রেকর্ডের স্মৃতি হয়ে আছে স্প্যানিশ ক্লাবটি। রিয়ালে দীর্ঘ বসন্ত পার করে অবশেষে জুভেন্টাসে যোগ দেন এ পর্তুগিজ ফুটবলার। অথচ রিয়াল মাদ্রিদের আগে স্পেনের আরেক ক্লাব ভ্যালেন্সিয়ায় খেলতে পারতেন রোনালদো।

cristiano ronaldo 50 goal

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে সতীর্থদের সাথে সম্পর্ক ভালো না যাওয়ায় ক্লাবটি ছেড়ে দেওয়ার ঘোষণা দেন সিআর সেভেন। সে সুযোগটি কাজে লাগাতে চেয়েছিল ভ্যালেন্সিয়া। আলোচনাও হয় প্রাথমিকভাবে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেই আলোচনা আলোর মুখ দেখেনি।

ম্যানইউ ছাড়া নিয়ে ২০০৬ সালের মাঝামাঝিতে রোনালদো বলেন, ‘এখন আমার ম্যানইউ ছেড়ে দেওয়া উচিত। এখানে পরিস্থিতি আমার অনুকূলে নেই। আমি খুব দ্রুত সিদ্ধান্ত নিবো।’ সেই সাথে স্পেনে খেলার আগ্রহ দেখান রোনালদো, ‘আমি স্পেনে খেলতে চাই। কারো ক্ষতি করিনি আমি। তবুও ম্যানইউতে কেউ আমার পক্ষে নেই।’

bad night for ronaldo

রোনালদোর এমন বক্তব্যের পরই তাকে দলে নিতে সব ধরনের কার্যক্রম শুরু করে দেয় ভ্যালেন্সিয়া। আলোচনা প্রায় শেষ পর্যায়ে ছিল। তবে হতে হতেও ক্লাবটির হয়ে খেলা হয়নি জুভেন্টাস তারকার। ক্লাবটির তৎকালীন স্পোর্টস ডিরেক্টর অ্যামেদো কারবোনি বলেন, ‘একটা সময় রোনালদোর সঙ্গে ম্যানইউয়ের সম্পর্ক ভালো যাচ্ছিল না। ২০০৬-৭ মৌসুমে আমরা সে সুযোগটা নিতে চেয়েছিলাম। রোনালদোরও সম্মতি ছিল। সবকিছু ঠিকও করে ফেলি তার এজেন্টের সাথে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা পূর্ণতা পায়নি।’

sheikh mujib 2020