advertisement
আপনি দেখছেন

বহু বছর পর ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলে দাপট দেখাল ইংলিশ দলগুলো। উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে ‘অল ইংলিশ’ ফাইনালে খেলবে ম্যানচেস্টার সিটি ও চেলসি। উয়েফার দ্বিতীয় সারির ‍টুর্নামেন্ট ইউরোপা লিগেও তেমনই সম্ভাবনা জেগেছিল। হতে পারতো আরেকটি ‘অল ইংলিশ’ ফাইনাল। সেটা হয়নি আর্সেনালের কারণে।

europa league villarreal arsenal

বৃহস্পতিবার রাতে ইউরোপা লিগের সেমিফাইনালের দ্বিতীয় লেগেও হোঁচট খেয়েছে উত্তর লন্ডনের ক্লাবটি। এমিরেটস স্টেডিয়ামে এসে আর্সেনালকে গোলশূন্য ব্যবধানে রুখে দিয়েছে ভিয়ারিয়াল। তাই প্রথম লেগে ২-১ গোলে পাওয়া জয়ের ওপর দাঁড়িয়ে ফাইনালের টিকিট কাটল স্প্যানিশ উঠতি শক্তি।

আর্সেনাল ড্র করে বিদায় নিয়েছে। তবে হেরেও টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠেছে তাদের ঘরোয়া লিগ প্রতিদ্বন্দ্বী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। কারণ মূল কাজটা প্রথম লেগেই সেরে ফেলেছে রেড ডেভিলসরা। ঘরের মাঠ ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে এএস রোমাকে ৬-২ গোলে হারিয়েছিল ওলে গানার সুলশারের দল। কাল রাতে ফিরতি লেগের থ্রিলার ম্যাচে ৩-২ গোলে হেরে গেছে ম্যানইউ।

জিতেও কাজ হলো না রোমার। অশ্রুসিক্ত বিদায় নিতে হলো ইতালিয়ান জায়ান্টদের। দুই লেগ মিলিয়ে তারা পিছিয়ে থাকল ৮-৫ গোলে। ফাইনালের টিকিট পেতে পাঁচ গোলের ব্যবধানে জিততে হতো রোমাকে। সেটা প্রায় অসম্ভবই ছিল। ক্ষীণ যা সম্ভাবনা ছিল সেটাও শেষ হয়ে গেছে এডিনসন কাভানির দুই অর্ধের দুই গোলে।

manchester united 2021

৩৯ মিনিটে প্রথম গোল করে ম্যানইউকে এগিয়ে দেন কাভানি। আগে গোল হজম করতে পারতো রেড ডেভিলসরাই। কিন্ত ম্যানইউর তিন কাঠির নিচে প্রথমার্ধে দুর্দান্ত পারফর্ম করলেন ডেভিড ডি গিয়া। বিরতির পর স্প্যানিশ গোলরক্ষকের প্রতিরোধ গুঁড়িয়ে দেয় রোমা। তিন মিনিটের মধ্যে করে দুই গোল।

৫৭ মিনিটে এডিন জেকোর হেডে সমতায় ফেরে রোমা। কিছুক্ষণ বাদেই স্বাগতিকদের লিড এনে দেন ব্রায়ান ক্রিসতান্তে। তিন মিনিটের মধ্যে আরো দুটো গোল পেতে পারতো রোমা। সেটাও হয়নি ডি গিয়ার কারণেই। তেমন কিছু হলে আরো একটা রূপকথার জয় পেতে পারতো রোমা। ৬৮ মিনিটে ব্রুনো ফার্নান্দেজের ক্রস থেকে হেডে ম্যানইউকে সমতায় ফেরান কাভানি।

রোমার শেষ সম্ভাবনাও শেষ হয়ে গেল তাতে। ৮৩ মিনিটে অ্যালেক্স টেলেসের আত্মঘাতী গোলটা রোমার সান্ত্বনার জয়ের উপলক্ষ্য নিয়ে এলো। উল্লেখ্য, আগামী ২৯ মে ইস্তাম্বুলে চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনাল। ২৬ মে পোল্যান্ডের গোডাইন্সকে ইউরোপা লিগের ফাইনাল।