advertisement
আপনি দেখছেন

মৌসুমের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সময়। বাকি আছে দুই রাউন্ড। যেখানে কিছুটা হলেও টিকে আছে রিয়াল মাদ্রিদের শিরোপা আশা। ঠিক এই সময় ইনজুরি চেপে ধরেছে মাদ্রিদ জায়ান্টদের। মরার ওপর খাড়ার ঘা হয়ে এসেছে টনি ক্রুসের মাঠের বাইরে ছিটকে যাওয়াটা। যা রিয়ালের জন্য বড়সড় একটা ধাক্কা হয়ে এলো।

zidane real madrid head coach

জার্মান মিডফিল্ডার অবশ্য ইনজুরিতে পরেননি। তবে করোনার ঝুঁকি আছে তাকে ঘিরে। করোনা পজিটিভ একজনের সংস্পর্শে এসেছেন রিয়াল মিডফিল্ডার। তাই বাধ্যতামূলক এক সপ্তাহের আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে ক্রুসকে। গেল মাসে একই কারণে ভালভার্দেকে নিয়ে ভুগতে হয়েছে রিয়ালকে।

আগামী রোববার লা লিগায় অ্যাথলেটিক বিলবাওর মাঠে খেলবে রিয়াল মাদ্রিদ। ওই ম্যাচে খেলা হবে না ক্রুসের। শেষ রাউন্ডের ম্যাচে ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষেও জার্মান তারকার খেলা অনিশ্চিত। তাতে গভীর দুশ্চিন্তায় রিয়াল প্রধান কোচ জিনেদিন জিদান। দুঃসংবাদ যে একটার পর একটা আসছেই।

ইনজুরির কারণে মাঠের বাইরে আছেন অধিনায়ক সার্জিও রামোস, লুকাস ভাসকেজ, ড্যানি কারভাহাল, ফারল্যান্ড মেন্ডি ও মার্সেলো। শেষজনকে নিয়ে অবশ্য চাঞ্চল্য আছে। স্প্যানিশ প্রচারমাধ্যম মুন্ডো দিপোর্তিভোর দাবি, কোচ জিদানের সঙ্গে ঝগড়া হয়েছে মার্সেলোর। এ কারণে ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডারকে দলের বাইরে রাখা হয়েছে।

casemiro real madrid 2019 20

যদিও এমনটা মানতে নারাজ রিয়াল কোচ। জিদানের দাবি চোটের ঝুঁকিতে আছেন মার্সেলো। এ কারণে গ্রানাডার বিপক্ষের ম্যাচে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে ব্রাজিলিয়ান তারকাকে। জিজু বলেছেন, ‘মার্সেলো চোটের অস্বস্তিতে আছে। আমরা ঝুঁকি নেইনি। চোটশঙ্কার কারণে গ্রানাডা ম্যাচে নেওয়া হয়নি ওকে।’

লা লিগায় শীর্ষে আছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। ৮০ পয়েন্ট তাদের। রিয়ালের ৭৮। বার্সার পয়েন্ট ৭৬। শেষ দুই ম্যাচে অ্যাটলেটিকো জিতলে চ্যাম্পিয়ন হবে তারা। তবে রিয়াল বাকি দুই ম্যাচে জিতলেও অমঙ্গল কামনা করতে হবে নগর প্রতিদ্বন্দ্বীদের জন্য।