advertisement
আপনি দেখছেন

১৬ বছরের একটা সম্পর্কের ইতি হয়েছে। রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে প্যারিস সেন্ট জার্মেইতে (পিএসজি) পাড়ি জমিয়েছেন সার্জিও রামোস। স্প্যানিশ কিংবদন্তি ডিফেন্ডারের মাদ্রিদ ছাড়ার আগেই পাঁচ বছরের চুক্তিতে রিয়াল উড়িয়ে এনেছে ডেভিড আলাবাকে। আজ নতুন ক্লাবে যোগ দিয়েছেন অস্ট্রিয়ান ‘অলরাউন্ডার’।

alaba and perez

ক্লাব ফুটবলে রক্ষণভাগেই বেশি দেখা যায় আলাবাকে। মধ্যমাঠেও জুড়ি নেই তার। কিন্তু জাতীয় দল অস্ট্রিয়াতে আক্রমণভাগে খেলছেন তিনি। সাব্যসাচী এই ফুটবলার অবশ্য রিয়ালে খেলবেন ডিফেন্ডার ভূমিকাতে। আরেকটু ছোট করে বললে রামোসের ভূমিকায়। এ যাত্রায় রিয়ালে রামোসের চার নাম্বার জার্সি পেয়েছেন আলাবা। বায়ার্ন মিউনিখে ২ নাম্বার জার্সি পরে খেলতেন তিনি। আর অস্ট্রিয়ায় আট নাম্বার।

রিয়াল মাদ্রিদ কর্তারাই তাকে চার নাম্বার জার্সি বেছে নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। আজ ক্লাব প্রেসিডেন্ট ফ্লোরেন্তিনো পেরেজের সঙ্গে জার্সি নিয়ে ফটোসেশন করেছেন আলাবা। সাবেক অধিনায়কের জার্সি পরা মানে বিশেষ দায়িত্বের ভার। সেটা অস্ট্রিয়ান সেনসেশনও জানেন। তবে রামোসের সঙ্গে নিজের তুলনায় প্রবল আপত্তি তার।

এনিয়ে সংবাদমাধ্যমকে আলাবা বলেছেন, ‘ক্লাব আমাকে এই নাম্বারটি প্রস্তাব করেছে। আমার মনে হয় আর কোনো নাম্বার ফাঁকা ছিল না। এই ক্লাবে নাম্বারটির গুরুত্ব আমার জানা আছে এবং এটা আমাকে অনুপ্রাণিত করছে। এটা দৃঢ়তা ও নেতৃত্বের প্রতীক। নাম্বারটির জন্য আমি সবকুটু উজাড় করে দিতে চাই। কিন্তু আমি অন্যের সঙ্গে নিজেকে তুলনা করতে এখানে আসিনি। আমি ডেভিড আলাবা, ডেভিড আলাবা-ই থাকব।’

গেত মে মাসের শেষ দিকে ফ্রি ট্রান্সফারে রিয়াল মাদ্রিদের চুক্তি সই করেন আলাবা। তাতেই শেষ হয় ২৮ বছর বয়সী তারকার বায়ার্ন মিউনিখ অধ্যায়। বাভারিয়ানদের হয়ে এক যুগেরও বেশি সময়ের ক্যারিয়ারে মেজর ট্রফির মধ্যে দুটি চ্যাম্পিয়নস লিগ, ১০টি বুন্দেসলিগা ও ছয়টি জার্মান কাপ জিতেছেন আলাবা।

রিয়াল মাদ্রিদেও এমন সাফল্যের স্বপ্ন দেখছেন আলাবা। জানালেন রিয়ালে যোগ দিয়ে স্বপ্নপূরণ হয়েছে তার। তিনি বলেছেন, ‘স্বপ্ন সত্যি হয়েছে। আমি বিশ্বের সেরা ক্লাবে এসেছি। এখানে থাকতে পারাটা আমাকে গর্বিত করে। এখানে আমি অনেক শিরোপা জিততে চাই। দলের সাফল্যে সাধ্যমতো ভূমিকা রাখতে চাই।’