advertisement
আপনি পড়ছেন

বার্সেলোনার সাথে লিওনেল মেসির সম্পর্কটা আত্মার থেকেও বেশি কিছু। বাবার হাত ধরে মাত্র ১৩ বছর বয়সে বসতি গড়েন কাতালান পাড়ায়। এরপর তার চিকিৎসাস পুরো দায়িত্ব নেয় লা লিগার অন্যতম প্রতাবশালী দলটি। আর্জেন্টিনার তারকা ফরোয়ার্ড এসব ভুলে যাননি। ভালোবাসা এবং কৃতজ্ঞতা আছে বলেই ফের শৈশবের স্মৃতিবিজড়িত ক্লাবে ফিরতে চান। তবে খেলোয়াড় হিসেবে নয়, ভিন্ন ভূমিকায়।

lionel messi barcelona 2প্রিয় এই জার্সিটাই এখন বড্ড অচেনা মেসির কাছে

বর্তমানে প্যারিস সেন্ট জার্মেই, পিএসজির হয়ে খেলছেন মেসি। যা হয়তো কখনও কল্পনাও করতে পারেননি। নিয়তির ওপর কারও হাত নেই। গত গ্রীষ্মে লা লিগার ফেয়ার প্লে নীতির সাথে সাংঘর্ষিক হওয়ায় নিজেদের সেরা তারকাকে ধরে রাখতে পারেনি বার্সা। তাতেই দীর্ঘ ২১ বছরের বার্সা-মেসি জুটির বিচ্ছেদ ঘটেছে।

মেসির বিদায়ের পর মাঠের খেলায় বার্সার দৈন্যদশা শুরু হয়েছে। টানা ম্যাচ হেরে খাদের কিনারায় পৌঁছেছে কাতালানরা। ব্যর্থতার দায় মাথায় নিয়ে কয়েকদিন আগে বরখাস্ত হয়েছেন হেড কোচ রোনাল্ড কোম্যান। দূর প্যারিসে বসে নিশ্চয় এসব খবর রাখছেন ছয়বারের ব্যালন ডি অর জয়ী। হয়তো প্রিয় ক্লাবের দুর্দিন দেখে মন কাঁদছে। কিন্তু এখন কিছুই করার নেই তার।

messi psg fansগত আগস্টে পিএসজিতে যোগ দিয়েছেন মেসি

পিএসজির সাথে দুই বছরের চুক্তি হয়েছে মেসির। বর্তমানে ৩৪ এর ঘরে পা দিয়েছেন। হয়তো চাইলেও আর বার্সার জার্সি গায়ে ফুটবলের সবুজ গালিচায় বাঁ পায়ের কারিকুরি দেখাতে পারবেন না। তাই সবশেষ কোপা আমেরিকার সেরা খেলোয়াড় আবারও প্রিয় ক্যাম্প ন্যুতে ফিরতে চান টেকনিক্যাল সেক্রেটারি হিসেবে।

সম্প্রতি স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম স্পোর্টকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মেসি বলেন, ‘আমি যে কোনভাবে বার্সাকে সাহায্য করতে রাজি আছি। ফুটবল ছাড়ার পর টেকনিক্যাল সেক্রেটারি হতে চাই। জানি না সেটা বার্সায় সম্ভব হবে কিনা।’

বার্সার প্রতি নিজের ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ করতে গিয়ে মেসি বলেন, ‘বার্সায় ফিরে যতটুকু সম্ভব অবদান রাখতে চাই। কারণ ক্লাবটার প্রতি আমার অনেক ভালোবাসা আছে। উন্নতিতে কাজ করে বার্সাকে বিশ্বসেরার কাতারে নিয়ে যেতে পারলে অনেক ভালো লাগবে।’