advertisement
আপনি দেখছেন

বেশ কয়েকজন তরুণ খেলোয়াড়ের আগমনে রিয়াল মাদ্রিদ একাদশে ব্রাত্য হয়ে পড়েছেন ইডেন হ্যাজার্ড। কোনোভাবেই যেন হয়ে উঠতে পারছেন না কার্লো আনচেলত্তির প্রিয় ছাত্র। এজন্য নিন্দুকেরা তাকে ‘বুড়ো’ বলে চালিয়ে দিচ্ছে। এটা মানতে নারাজ থিবো কোর্তোয়া। লস ব্লাঙ্কোসদের গোলকিপার মনে করেন, এখনও বুড়ো হয়ে যাননি বেলজিয়ান অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার।

hazard and courtois 2কোর্তোয়া ও হ্যাজার্ড

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব চেলসি ছেড়ে ২০১৯ সালের জুনে রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেন হ্যাজার্ড। এরপর থেকে চোটের কারণে বেশিরভাগ সময় মাঠের বাইরে থাকতে হয়েছে তাকে। তাতে হারিয়েছেন নিজের চেনা ছন্দ। একাদশে জায়গা না পাওয়ার এটাও অন্যতম একটা কারণ ৩০ বছর বয়সী তারকার। চ্যাম্পিয়নস লিগে গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় লেগে শেরিফের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে সংবাদ সম্মেলনে কোর্তোয়া বলেন, ‘আমি মনে করি, একাদশে জায়গা না পেয়েও হ্যাজার্ড দুঃখিত নয়। তার কিছু গুণ আপনি ভুলতে পারবেন না। আমরা তাকে বুড়ো খেলোয়াড় ভাবতে পারি না। কারণ সে এটা না।’

চ্যাম্পিয়নস লিগের প্রথম পর্বে গত ২৯ সেপ্টেম্বর সান্টিয়াগো বার্নাব্যুতে শেরিফকে আতিথেয়তা দিয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। সেই ম্যাচে শুরুর একাদশে ছিলেন হ্যাজার্ড। এখনও দলের গুরুত্বপূর্ণ অংশ সাবেক লিল তারকা, এমনটাই মনে করেন কোর্তোয়া, ‘আমি নিশ্চিত, হ্যাজার্ড রিয়াল মাদ্রিদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। প্রশিক্ষণ এবং ম্যাচের মাধ্যমে সে নিজেকে প্রমাণ করবে।’

eden hazard 3কার্লো আনচেলত্তির একাদশে ব্রাত্য হয়ে পড়েছেন হ্যাজার্ড

বিশ্বের সেরাদের একজন হওয়া সত্ত্বেও ফিফার বর্ষসেরা গোলকিপারের জন্য মনোনীত হননি কোর্তোয়া। এজন্য মন খারাপ না করে এই বেলজিয়ান তারকা জানালেন, দলের অর্জনই তার কাছে সবকিছু, ‘ব্যক্তিগত অর্জনের থেকে দলীয় শিরোপা আমার কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এই মৌসুমে আমি রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ বা লা লিগা জিততে পছন্দ করব।’