advertisement
আপনি পড়ছেন

অনেক চেষ্টা করেও প্রথমার্ধে গোলমুখ খুলতে পারেনি বার্সেলোনা। বিরতির পরপরই এগিয়ে যায় তারা। কিন্তু সেই হাসি বিলীন হতেও সময় লাগেনি। তবে এদিন ভাগ্য ভালো ছিল কাতালানদের। একেবারে শেষ মুহূর্তের জাদুতে পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছেড়েছে জাভি হার্নান্দেজের দল।

barcelona vs villarealভিয়ারিয়ালকে হারিয়েছে বার্সেলোনা

স্প্যানিশ লা লিগায় গত রাতে ভিয়ারিয়ালের মুখোমুখি হয় বার্সা। এস্তাদিও দে লা ক্যারামিকাতে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে উনাই ইমেরির শিষ্যদের বিপক্ষে ৩-১ গোলের জয় তুলে নিয়েছে সফরকারী দল। প্রতিপক্ষের মাঠে ফ্রেঙ্কি ডি ইয়ং কাতালানদের এগিয়ে নেন। স্যামুয়েল চুকুয়েজের গোলে সমতায় ফেরে স্বাগতিকরা। শেষ দিকে মেম্ফিস ডিপেই ও ফিলিপ্পে কুতিনহো জালের দেখা পেলে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলে লিগ জায়ান্টরা।

ব্যর্থতা থেকে বের হতে চলতি মাসের শুরুতে জাভিকে হেড কোচের দায়িত্ব দেয় বার্সা। শুরু থেকেই প্রত্যাশা মিটিয়ে যাচ্ছেন সাবেক স্প্যানিশ তারকা মিডফিল্ডার। গত ২১ নভেম্বর কাতালানদের ডাগআউটে অভিষেকের দিনে এস্পানিওলের বিপক্ষে পেয়েছিলেন ১-০ গোলের জয়ের স্বাদ। এবার ভিয়ারিয়ালের মাঠেও সে ধারা অব্যাহত রাখলেন। সেই সাথে চলতি মৌসুমে প্রথমবারের মতো টানা দুই জয়ের দেখা পেল দুইবারের হেক্সাজয়ীরা।

barcelona vs villareal 2গোলের পর ডিপেই ও কুতিনহোর উচ্ছ্বাস

ম্যাচ হারলেও বল দখল এবং আক্রমণে এগিয়ে ছিল ভিয়ারিয়াল। ৫১ শতাংশ বল দখলে নিয়ে গোলমুখে স্বাগতিকদের করা ১৪ শটের মধ্যে মাত্র ২টি লক্ষ্যে ছিল। বিপরীতে ১২ শটের মধ্যে ৬টিই লক্ষ্যে রাখতে পেরেছে বার্সা। দারুণ সব সুযোগ পাওয়ার পরও ফিনিশিংয়ের অভাবে ব্যবধান বাড়িয়ে নিতে পারেনি তিন নম্বরে থেকে গত আসর শেষ করা দলটি।

১৪ ম্যাচ শেষে টেবিলের সাত নম্বরে অবস্থান করছে বার্সা। ছয় জয়, পাঁচ ড্র এবং তিন পরাজয়ে তাদের সংগ্রহ ২৩ পয়েন্ট। এক ম্যাচ কম খেলে ৩০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে রিয়াল মাদ্রিদ। ২৯ পয়েন্ট পাওয়া রিয়াল সোসিয়েদাদের অবস্থান দুই নম্বরে।