advertisement
আপনি পড়ছেন

২০২০ সালের নভেম্বর থেকে একের পর এক চোট পেয়ে যাচ্ছেন আনসু ফাতি। সম্প্রতি আরও একবার চোট পেয়েছেন এই প্রতিভাবান ফরোয়ার্ড। তবে এবার আর ছুরির নিচে যেতে চান না তিনি। রক্ষণাত্মক উপায়ে হেঁটে সুস্থ হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ১৯ বছর বয়সী ফুটবলার। এমনটাই জানিয়েছে স্পেনের ফুটবলভিত্তিক প্রচারমাধ্যম মার্কা।

ansu fati 5আনসু ফাতি

কোপা দেল রের রাউন্ড অব সিক্সটিনের ম্যাচে গত ২১ জানুয়ারি অ্যাটলেটিক বিলাবওয়ের মুখোমুখি হয় বার্সেলোনা। সান মেমস বারিয়াতে সেদিন অতিরিক্ত সময়ে গড়ানো ম্যাচে ৩-২ গোলে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নেয় কাতালানরা। বিরতির পর ফাতিকে মাঠে নামান জাভি হার্নান্দেজ। কিন্তু হাঁটুর চোটের কারণে অতিরিক্ত সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে এই লেফট উইঙ্গারকে তুলে নেন সফরকারী দলের হেড কোচ।

চোট থেকে সুস্থ হতে ফাতিকে দুটি পথ দেখিয়ে দেন বার্সেলোনার চিকিৎসকরা। একটি অস্ত্রোপচার, অন্যটি রক্ষণাত্মক চিকিৎসা। সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য কিছুটা সময় নিয়েছিলেন এই তারকা খেলোয়াড়। এ সময়ের মধ্যে বাবা, এজেন্ট জর্জ মেন্ডেস ও ব্লুগ্রানারদের মেডিকেল স্টাফের সাথে আলোচনার পর দ্বিতীয়টা বেছে নেন ফাতি। এজন্য তাকে ছয় থেকে আট সপ্তাহ মাঠে বাইরে থাকতে হবে।

fati crying on the fieldফের ইনজুরিতে পড়েছেন ফাতি

২০২০ সালের নভেম্বরে ইনজুরিতে পড়ে দীর্ঘ ১০ মাস মাঠের বাইরে থাকতে হয় ফাতিকে। গত সেপ্টেম্বরে প্রত্যাবর্তন হয়েছিল তার। মাঝে মানসিকভাবে বাজে সময় পার করেছেন এই তরুণ তুর্কি। বিভিন্ন সূত্রের দাবি, নতুন করে অস্ত্রোপচার করে আরও লম্বা সময়ের জন্য মাঠের বাইরে থাকতে চাইছেন না ফাতি। তাই বেছে নিয়েছেন রক্ষণাত্মক চিকিৎসা।

দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা থাকায় ফাতির প্রতি বেশি যত্নশীল বার্সেলোনা। এজন্য বাড়তি সময় লাগলেও স্প্যানিশ তারকাকে চিকিৎসকের ছুরির নিচে পাঠাতে চেয়েছিল কাতালুনিয়ার ক্লাবটি। বিষয়টা ইনজুরির ঝুঁকি অনেকটাই কমিয়ে দিতে সক্ষম হতো। কিন্তু ফাতির সিদ্ধান্তের কাছে বার্সেলোনার চাওয়া প্রাধান্য পায়নি।