advertisement
আপনি পড়ছেন

ইকুয়েডরের বিপক্ষে শুরুতেই এগিয়ে গিয়ে দারুণ কিছু করার আভাস দিয়েছিল ব্রাজিল। কিন্তু ম্যাচের আয়ু বাড়ার সাথে সাথে ফুটবলীয় লড়াইকে ছাপিয়ে শারীরিক প্রদর্শনী দেখেছে ভক্তরা। ভিডিও অ্যাসিসট্যান্ট রেফারি, ভিএআরের নাটকীয়তার পাশাপাশি একটি করে লাল কার্ড গেছে দুই দলের পক্ষে। ঘটনা বহুল ম্যাচটিতে শেষ পর্যন্ত পয়েন্ট হারিয়েছে ইয়োলো জার্সিধারীরা।

ecuador vs brazilইকুয়েডরের সাথে ড্র করেছে ব্রাজিল

২০২২ কাতার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ইকুয়েডরের সাথে ১-১ গোলে ড্র করেছে ব্রাজিল। ইকুয়েডরের মাঠ এস্তাদিও রদ্রিগো পাজ দেলগাদোতে কাসিমিরোর গোলে এগিয়ে যায় সফরকারীরা। এরপর স্বাগতিকদের ম্যাচে ফেরান ফেলিক্স এদোয়ার্দো তরেস কাইসেদো।

ম্যাচের ছায়া হয়ে থাকা ভিএআর বিতর্ক ছিল তুঙ্গে। এর পুরোটাই গেছে ব্রাজিলের পক্ষে। দুবার বহিষ্কৃত হয়েও এই প্রযুক্তির কল্যাণে বেঁচে গেছেন সফরকারী দলের গোলরক্ষক আলিসন বেকার। এমনকি ইকুয়েডরের পক্ষে আসা দুটি পেনাল্টির সিদ্ধান্তও পাল্টে যায় ভিএআরের কারণে।

ecuador vs brazil 2ম্যাচের একটি মুহূর্ত

ম্যাচের ষষ্ঠ মিনিটেই এগিয়ে যায় ব্রাজিল। প্রতিপক্ষের ভুলকে কাজে লাগিয়ে অনায়াসেই জালে বল জড়ান রিয়াল মাদ্রিদ মিডফিল্ডার কাসেমিরো। ১৫ মিনিটে ১০ জনের দলে পরিণত হয় ইকুয়েডর। প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়কে বুট দিয়ে আঘাত করলে ভিএআর দেখে স্বাগতিক গোলরক্ষ আলেক্সান্ডার ডোমিনগেজকে লাল কার্ডে দেখান রেফারি। পাঁচ মিনিট পর লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন ব্রাজিলের রাইট ব্যাক এমারসন রোয়াইয়াল।

বিরতির আগের বাকি সময়ে দুই দলই প্রতিপক্ষ শিবিরে ভীতি ছড়ায়। স্পষ্ট সুযোগের অভাবে তার একটাও গোলে পরিণত হয়নি। বিপরীতে সমান ১০টি করে ফাউল করে ব্রাজিল ও ইকুয়েডর। এর রেশ ছিল ম্যাচের দ্বিতীয় ভাগের শুরুতেও। অনেক নাটকীয়তার পর ৭৫ মিনিটে সমতায় ফেরে স্বাগতিকরা। কর্ণার থেকে পাওয়া বলে দারুণ এক হেডে লক্ষ্যভেদ করেন তরেস। ম্যাচের বাকি সময়ে অনেক চেষ্টা করেও কোন দল আর গোলমুখ খুলতে পারেনি।

১৪ ম্যাচে ৩৬ পয়েন্ট নিয়ে দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের শীর্ষে আছে ব্রাজিল। ২৪ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে অবস্থান করছে ইকুয়েডর।