advertisement
আপনি পড়ছেন

টেবিল টপার হওয়ায় পিএসজি এবং মার্সেইয়ের ম্যাচটির দিকে বাড়তি নজর ছিল সবার। প্যারিসের ক্লাবটির বিপক্ষে কোনো অঘটন ঘটাতে পারেনি হোর্হে লুইস সাম্পাওলির দল। ২-১ গোলের জয় তুলে নিয়েছে পিএসজি। সেই সাথে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীদের সাথে ব্যবধান বাড়িয়ে শিরোপা পুনরুদ্ধারের আরও কাছে চলে গেছে তারা। 

psg team 3মার্সেইকে হারিয়েছে পিএসজি

৩২ ম্যাচে পিএসজির সংগ্রহ ৭৪ পয়েন্ট। ২৩ জয়ের পাশাপাশি ৫ জয় এবং ৪ ড্র তাদের সঙ্গী। বাকি ছয় ম্যাচের মধ্যে একটিতে জিতলেই শিরোপা নিশ্চিত হয়ে যাবে ফরাসি জায়ান্টদের। দুই নম্বরে থাকা মার্সেইয়ের নামের পাশে আছে ৫৯ পয়েন্ট। পিএসজির সমান ম্যাচ খেলে ১৭ জয় পেয়েছে দলটি। আট ড্রয়ের বিপরীতে হেরেছে সাতটিতে।

মার্সেইয়ের বিপক্ষে দাপুটে ফুটবল উপহার দিয়েছে পিএসজি। পার্ক দে প্রিন্সেসে ১২ মিনিটেই লিড নেয় স্বাগতিকরা। ভেরাত্তির ক্রস থেকে বুদ্ধিদীপ্ত গোল করেন ব্রাজিলিয়ান তারকা খেলোয়াড় নেইমার জুনিয়র। ৩১ মিনিটে ম্যাচে ফেরে সফরকারীরা। কর্নার থেকে আসা বল ক্লিয়ার করতে পারেননি পিএসজির গোলরক্ষক এবং ডিফেন্ডাররা। জটলার মাঝে বল পেয়ে জালে জড়ান কালেতা কার।

messi in action 2অফসাইডের কারণে মেসির দুটি গোল বাতিল হয়েছে

১০ মিনিট পর লক্ষ্যভেদ করেছিলেন লিওনেল মেসি। সতীর্থ নুনো মেন্ডেসের অফসাইডের কারণে গোল বাতিল করেন রেফারি। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে একইভাবে মেসির আরও একটি গোল বাতিল হয়। বিরতিতে যাওয়ার ঠিক আগে ভিএআরের পেনাল্টি পায় স্বাগতিকরা। সফল স্পট কিক থেকে ব্যবধান বাড়ান কিলিয়ান এমবাপ্পে। এ নিয়ে চলমান লিগে ২৯ ম্যাচে ২১ গোল করলেন এই ফরোয়ার্ড।

বিরতির পর কোনো দলই তেমন সুযোগ তৈরি করতে পারেনি। এই সময়টাতে রক্ষণে তুলনামূলক বেশি মনোযোগী ছিল পিএসজি। লিগে টানা তৃতীয় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে দলটি। আগামী ২১ এপ্রিল এঞ্জার্সের বিপক্ষে মাঠে নামবে পিএসজি।