advertisement
আপনি পড়ছেন

ক্রিস্টাল প্যালেসের বিপক্ষে ম্যাচের দুই অর্ধে দেখা গেছে দুই রকম চেলসিকে। প্রথমার্ধের ধারহীন দলটি বিরতির পর খেলেছে গোছালো এবং আক্রমণাত্মক ফুটবল। তাদের চাপের সামনে টিকে থাকতে পারেনি প্যাট্রিক ভিয়েইরার শিষ্যরা। ২-১ গোলের জয়ে এফএ কাপের শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে জায়গা করে নিয়েছে ব্লুজরা।

chelsea in the final 2ক্রিস্টাল প্যালেসকে হারিয়েছে চেলসি

এ নিয়ে টানা তৃতীয়বারের মতো এফএ কাপের ফাইনালে উঠল চেলসি। আগামী ১৪ মে শিরোপার লড়াইয়ে লিভারপুলের বিপক্ষে মাঠে নামবে টমাস টুখেলের দল। গত ১৬ এপ্রিল শেষ চারের প্রথম ম্যাচে সাদিও মানের জোড়া গোলে ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে ৩-২ ব্যবধানের জয় তুলে নেয় রেডরা। এর মধ্য দিয়ে ২০১২ সালের পর এই প্রথম প্রতিযোগিতার ফাইনাল খেলবে ইয়ুর্গেন ক্লপের শিষ্যরা।

প্রথমার্ধে ক্রিস্টাল প্যালেসের গোলমুখে চেলসির নেওয়া মাত্র একটি শট লক্ষ্যে ছিল। প্রতিপক্ষরাও উত্তর লন্ডনের দলটির রক্ষণভাগের তেমন কোনো পরীক্ষা নিতে পারেনি। বিরতির পর খোলস পাল্টে বের হয়ে এসে আক্রমণে জোর দেয় চেলসি। এ সময় দ্বিতীয় সারির দলটির পোস্টে তিনটি শট লক্ষ্যে রেখে দুটি গোল আদায় করে নেয় সম্প্রতি রিয়াল মাদ্রিদের কাছে হেরে চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ আট থেকে বিদায় নেওয়া দলটি।

chelsea in the final 3প্রতিপক্ষের গোলমুখে শট নিচ্ছেন চেলসির এক খেলোয়াড়

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই ক্রিস্টাল প্যালেসকে চেপে ধরা চেলসি এগিয়ে যায় ৬৫ মিনিটে। জার্মান তারকা খেলোয়াড় কাই হাভার্টসের কাটব্যাক প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডারের পায়ে লাগলে বল পান রুবেন চেক। দুর্দান্ত ভলিতে ঠিকানা খুঁজে নেন এই ইংলিশ ফুটবলার। ১১ মিনিট পর ব্যবধান বাড়ায় চেলসি। সতীর্থ টিমো ভেরনারের কাছ থেকে বল পেয়ে দূরের পোস্ট দিয়ে জালে জড়ান মাঝমাঠের সেনানি ম্যাসন মাউন্ট।