advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাস মহামারির চোখ রাঙানিকে উপেক্ষা করে বিশ্বজুড়ে চলছে প্রায়সব ধরনের খেলাধুলা। তবে সেটা ‘জৈব সুরক্ষা’ বলয়ে। এর মধ্যে বড়সড় একটা দুঃসংবাদ এলো টেনিসের আঙিনা থেকে। করোনা সংক্রমণের ঝুঁকিতে ৪৭ জন খেলোয়াড়কে পাঠানো হলো দুই সপ্তাহের হোমকোয়ারেন্টিনে।

australian open arrivals hit by two covid 19 positive tests players

বছরের প্রথম গ্র্যান্ডস্লাম টুর্নামেন্ট অস্ট্রেলিয়ান ওপেন আয়োজনের প্রস্তুতি চলছে। প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে আকাশ পথে ক্যাঙ্গারুর দেশে পৌঁছান। এরপরই জানা গেল খেলোয়াড়, কোচ ও অফিসিয়ালসদের বহনকারী দুটি চার্টাড বিমানে থাকা তিন যাত্রী কোভিড-১৯ পরীক্ষায় পজিটিভ হয়েছেন। সর্বশেষ খবর অনুযায়ী দুইজন খেলোয়াড়ও পজিটিভ হয়েছেন।

করোনা ঝুঁকি সর্বনিম্ন করতে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন আয়োজনের সময়সীমা তিন সপ্তাহ পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। পরিবর্তিত ‍সূচি অনুযায়ী আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি টুর্নামেন্ট শুরু হবে কিনা এনিয়েই জেগেছে সংশয়। বিমান দুটিতে থাকা টুর্নামেন্ট সংশ্লিষ্টদের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনের কারণেই এমন আশঙ্কা হচ্ছে।

চার্টাড বিমান ‍দুটির একটি এসেছে লস এঞ্জেলস থেকে। এই বিমানের দুজন এবং আবুধাবি থেকে মেলাবোর্নে পৌঁছানো অন্য বিমানের এক যাত্রী পজিটিভ হয়েছেন। অস্ট্রেলিয়ায় পা রাখা সব যাত্রীর পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়ার পর কড়া বার্তা দিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগ ও টুর্নামেন্টের কর্তৃপক্ষ। আগামী দুই সপ্তাহ কোয়ারেন্টিন চলাকালীন কেউ হোটেল কক্ষ থেকে বের হতে পারবেন না।

nadal returns top rankings

সিডনি মর্নিং হেরাল্ড তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, লস এঞ্জেলস থেকে আসা বিমানে ছিলেন সাবেক চ্যাম্পিয়ন কেই নিশিকোরি ও ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা। অন্য বিমানে ছিলেন রাফায়েল নাদাল। দুই দফা পরীক্ষায় নেগেটিভ হওয়ার পর বিমানে চড়েন তারা। ঝুঁকি এড়াতে ১৫টি বিশেষ বিমানে টুর্নামেন্ট সংশ্লিষ্টদের মেলবোর্নে আনা হচ্ছে। আপতত অন্য দেশের জনসাধরণের অস্ট্রেলিয়া ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা চলছে।

sheikh mujib 2020