advertisement
আপনি দেখছেন

জাপানে করোনার সংক্রমণ দিন দিন বেড়েই চলেছে। এরই মধ্যে দেশটিতে আগামী মাসের শেষ সপ্তাহে অলিম্পিক শুরু হওয়ার কথা। তবে দেশটির সাধারণ মানুষ চলমান মহামারিতে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়া আসরটি তাদের দেশে বসুক তা চাইছেন না।

tokyo olympic

করোনার কারণে গত বছর অলিম্পিক স্থগিত হয়ে যায়। যেটা আগামী মাসের ২৩ তারিখ টোকিওতে শুরু হবে। তবে তার আগেই অলিম্পিক বন্ধে গণস্বাক্ষর শুরু করেছে জাপানিরা। ইতিমধ্যে সাড়ে তিন লাখেরও বেশি মানুষ সমর্থন জানিয়েছেন।

এমন অবস্থায় দুশ্চিান্তায় আছেন আয়োজকরা। যদিও তারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে নির্ধারিত সময়ে অলিম্পিক আয়োজন করার বিষয়ে আশাবাদী।

গণস্বাক্ষরের জন্য পিটিশন আবেদন করা কেনজি উতসুনোমিয়াই গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, এখনই সিদ্ধান্ত নিতে হবে। আমরা জীবনকে গুরুত্ব দেব নাকি অলিম্পিক নামের একটি অনুষ্ঠানকে। দেরি করার মতো সময় নেই।

বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়া ইভেন্ট উপলক্ষে অ্যাথলেট, কোচ, সাপোর্ট স্টাফসহ সংশ্লিষ্ট ১০ হাজারেরও বেশি মানুষের উপস্থিত হবে। এমনিতেই করোনার কারণে দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগকে চাপে পড়তে হয়েছে। তার ওপর এতো মানুষের উপস্থিতি সামাল দেয়া সত্যিই দুরূহ হবে।