advertisement
আপনি পড়ছেন

সপ্তাহ জুড়ে অভিযান চালিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে বৈধ কাগজপত্রবিহীন কয়েকশ অভিবাসীকে আটক করার খবর প্রকাশ হয়েছে। এটিকে ‘নিয়মিত’ প্রক্রিয়া হিসেবে উল্লেখ করছে মার্কিন কর্তৃপক্ষ। এদিকে এমন ধর-পাকড়াওয়ে অভিবাসীদের মধ্যে চরম আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।

immigrants arrested us

রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল ইমিগ্রেশন এজেন্টরা আটলান্টা, নিউইয়র্ক, শিকাগো এবং লস অ্যাঞ্জেলেসের বিভিন্ন অভিবাসী অধ্যুষিত এলাকায় অভিযান চালিয়ে এক সাথে এতো সংখ্যাক অভিবাসী আটক করেছে।

দেশটির ইমিগ্রেশন অ্যান্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্টের (আইসিই) কর্মকর্তা ডেভিড মেরিন বলছেন, নিয়মিত আইনপ্রয়োগ কার্যক্রম হিসেবে এই আটকের ঘটনা ঘটেছে।

তবে অভিবাসন বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন অভিবাসী সম্পর্কে ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরূপ মনোভাবের ফলই হচ্ছে এই আটক অভিযান। এক নির্বাহী আদেশের মাধ্যমে চার মাসের জন্য সকল প্রকার অভিবাসীদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। আদালতের আদেশে এই নিষেধাজ্ঞা অবশ্য স্থগিত রয়েছে।

আর আদালত এমন আদেশ দেওয়ার পরই ক্ষোভ প্রকাশ করে ট্রাম্প জানিয়েছিলেন, অভিবাসী ঠেকানোর চেষ্টা চালিয়ে যাবে তার সরকার।

অভিযান চালিয়ে ঠিক কতজন অভিবাসীকে আটক করা হয়েছে তার সংখ্যা প্রকাশ করেনি যুক্তরাষ্ট্রের ইমিগ্রেশন অ্যান্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্টের (আইসিই)। তবে আইসিই কর্মকর্তা জানিয়েছেন, আটলান্টা অফিসের অধীনে ২০০ জনকে আটক করা হয়েছে। লস অ্যাঞ্জেলেস ও তার আশেপাশের এলাকা থেকে আটক করা হয়েছে ১৬১ জনকে। ক্যালিফোর্নিয়ার দক্ষিণাঞ্চল থেকেও একশ'র বেশি অভিবাসীকে আটক করা হয়েছে।