advertisement
আপনি দেখছেন

মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশে সংখ্যালঘু মুসলিম রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর জাতিগত শুদ্ধি অভিযান চালানোর কথা অস্বীকার করেছেন দেশটির ফার্স্ট স্টেট কাউন্সিলর ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী অং সান সু চি।

aung san suu kyi

সম্প্রতি বিবিসিকে দেয়া এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে রাখাইন প্রদেশে সংখ্যালঘু মুসলিম রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ডের কথা অস্বীকার করেন। তবে তিনি স্বীকার করেন যে, সেখানে কিছু সমস্যা রয়েছে।

সু চি বলেন, রাখাইনে জাতিগত শুদ্ধি অভিযান চলছে এটি সঠিক নয়। সেখানে নানারকম শত্রুতা ও বিদ্বেষ চলছে। মুসলমানরা মুসলমানদেরকে হত্যা করছে। বিদেশে পালিয়ে যাওয়া রোহিঙ্গারা যদি দেশে ফিরে আসে তাহলে তাদের স্বাগত জানানো হবে।

তিনি বলেন, গণমাধ্যমে প্রকাশি রোহিঙ্গা নির্যাতনের খবরটি সঠিক নয়। সেখানে জাতিগত শুদ্ধি অভিযান চলছে না। সেখানে তাদের নিজেদের মধ্যেই বিভাজন রয়েছে। সরকার বরং সেই বিভাজনের সমাধানে চেষ্টা করে যাচ্ছে।

অং সান সু চি এমন এক সময় প্রকাশ্যে গণমাধ্যমে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর হামলার কথা অস্বীকার করলেন যখন দেশটিতে সরকারি নিরাপত্তা বাহিনীর অত্যাচার, গণহত্যা, ধর্ষণ ও নির্যাতনের হাত থেকে রক্ষা পেতে লাখেরও কাছাকাছি রোহিঙ্গা মুসলমান বাংলাদেশসহ অন্যান্য প্রতিবেশী দেশগুলোতে পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়েছে। জাতিসংঘও এ ব্যাপারে তাদের উদ্বেগের কথা প্রকাশ করেছে।