advertisement
আপনি দেখছেন

আফগানিস্তানের বলখ প্রদেশের রাজধানী মাজার-ই-শরিফের সেনাঘাঁটিতে স্মরণকালের ভয়াবহ তালেবান হামলায় নিহত সেনা সদস্যের সংখ্যা বেড়ে অন্তত ১৪০ জন হয়েছে। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এই সংখ্যার কথা জানিয়েছে। তবে আফগান সরকার এখন পর্যন্ত হামলায় নিহতের সংখ্যা সম্পর্কে কিছু জানায়নি।

afganistan taliban

তবে সংশ্লিষ্ট কারও কারও মতে প্রকৃত নিহতের সংখ্যা আরও অনেক বেশি। আফগান সরকার এখনই তা প্রকাশ করছে না। এই হামলাকে এ যাবতকালের সবচেয়ে ভয়াবহ হামলা বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়া আহতের সংখ্যা আরও অনেক বেশি বলে ধারনা করা হচ্ছে।

প্রথমে এই হামলায় নিহতের সংখ্যা ২০-৫০ জন বলে জানানো হয়েছিল। তবে পরবর্তীতে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক আফগান কর্মকর্তা নিহত ১৪০ জন বলে জানান রয়টার্সকে। এই হামলায় বিদেশি কোনো সেনা নিহত হয়নি বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

উল্লেখ্য, গতকাল শুক্রবার জুম্মার নামাজের সময় মাজার-ই শরিফের সেনা ঘাঁটিতে এ ঘটনা ঘটে। আফগানিস্তান সামরিক বাহিনীর একজন মুখপাত্র বলছে, শুক্রবারের জুম্মার নামাজের জন্য সৈনিকরা সেনা ঘাঁটির বাইরে বেরিয়ে যাচ্ছিল তখনি সেনা সদস্যদের মতো পোশাক পরে এই হামলা চালানো হয়েছে।

জানা গেছে, তালেবানদের আরেকটি দল হামলা চালিয়েছে ক্যান্টিনে থাকা সেনাদের উপর। সূত্র বলছে, তারা প্রথমে আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটিয়ে প্রথমেই ওই সেনা ঘাঁটির প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ভেঙ্গে দেয়।

মাজার-ই শরিফের বাইরে আক্রান্ত সেনা ঘাটিতে দিনের শেষবেলাতেও সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে। কর্তৃপক্ষ বলছে, হামলায় হতাহতের সংখ্যা আরো বেশি হতে পারে। এদিকে এই ঘটনায় ১০ জন তালেবান 'জঙ্গি' নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে।