advertisement
আপনি পড়ছেন

তিনদিন আগেও উত্তর কোরিয়াকে উড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিচ্ছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। কথায় কথায় দিচ্ছিলেন কিম জং উনকে মেরে ফেলার হুঙ্কার। কিন্তু দুদিন ধরে নরম হয়ে এসেছে ট্রাম্পের গলা। এবার তিনি চাইছেন উনের সঙ্গে দেখা করতে! তার আগে বলেছেন, ‘উন একজন দারুণ মানুষ।’

trump wants to meet kim jong

আজ বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে এমন খবর গুরুত্ব দিয়ে প্রচার করা হচ্ছে। বলা হচ্ছে, গতকাল সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে ট্রাম্প উনের সঙ্গে দেখা করার আগ্রহ প্রকাশ করেন এবং বলেন যে, উনের সঙ্গে দেখা করলে তিনি নিজেকে সম্মানিত মনে করবেন।

এর আগে উত্তর কোরিয়া কর্তৃপক পরিচালিত পরমাণু ও ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি উদ্বেগ প্রকাশ করে নানা হুমকি ধামকি দেয় যুক্তরাষ্ট্র। এমন কি তারা উত্তর কোরিয়ার দিকে লক্ষ্য করে রণতরিও পাঠায়।

তারপরও উত্তর কোরিয়া তাদের কর্মকাণ্ড এবং মনোভাবে কোনো পরিবর্তন আনেনি। বরং যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক হুমকি ও হুঁশিয়ারির তোয়াক্কা না করে একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়ে গেছে তারা। এই পরিস্থিতি ট্রাম্প বলেছিলেন যে, যে কোনো মুহূর্তে তার দেশ উত্তর কোরিয়ায় সামরিক পদক্ষেপ নিতে পারে।

পরিস্থিতি যখন ক্রমেই ঘোলাটে হচ্ছে, ঠিক তখনই ট্রাম্পের মুখে কিমের প্রশংসা শোনা গেলো। বিশ্লেষকরা মনে করছেন, উত্তর কোরিয়ার তোয়াক্কা না করার মনোভাবে কিছুটা হলেও বিব্রত যুক্তরাষ্ট্র। তারই প্রকাশ ঘটছে ট্রাম্পের গলায়।