advertisement
আপনি পড়ছেন

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর চলমান নৃসংশতায় আমেরিকার পক্ষ থেকে কোনো পদক্ষেপ নেয়ার সম্ভাবনা নেই বলে ধারণা করা হচ্ছে। আন্তর্জাতিক একাধিক সংবাদমাধ্যমে জানানো হয়েছে, ওয়াশিংটন মিয়ানমারের সঙ্গে সামরিক সম্পর্ক বাড়ানোর পরিকল্পনা করছে।

myanmar rohinga new pic

বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েটড প্রেস বা এপি জানিয়েছে, আগামী সপ্তাহে মার্কিন সিনেট প্রতিরক্ষা ব্যয় সংক্রান্ত একটি বিলে ভোট দেবে। বিলটি পাস হলে মিয়নামারের সেনাবাহিনীর সঙ্গে পেন্টাগন সামরিক সহযোগিতা বাড়াতে পারবে।

সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, খসড়া বিলের আওতায় সমুদ্রে নিরাপত্তা রক্ষার পাশাপাশি শান্তিরক্ষা এবং মানব পাচার রোধে দুই দেশের সামরিক বাহিনী নানা প্রশিক্ষণ এবং ওয়ার্কশপে অংশ নেবে।

প্রসঙ্গত, মিয়ানমারের সংখ্যাগরিষ্ঠ রোহিঙ্গা মুসলমানদের গণহত্যার ইস্যুতে আমেরিকা দেশটির নেতা অং সাং সু চির বিরুদ্ধে নিন্দা জানাতে ব্যর্থ হওয়ায় আন্তর্জাতিক মহলে নিন্দার ঝড় ওঠেছে। বিশ্লেষকরা মনে করছেন, রাজনৈতিক স্বার্থ রক্ষার জন্যে আমেরিকা মিয়ানমারের বিরুদ্ধে এমন কোন পদক্ষেপ নিতে চাইছে না যা মিয়ানমার সরকার এবং প্রভাবশালী সেনাবাহিনীর সাথে ওয়াশিংটনের সম্পর্কে টানাপোড়েন সৃষ্টি করে।