advertisement
আপনি পড়ছেন

আইন অমান্যের কারণে সাজা দিয়ে থাকেন বিচারকগণ। এবার সেই বিচারকই আইন বহির্ভূত কাণ্ড ঘটালেন। তাও আবার যে সে কাণ্ড না। মদ পান করে একেবারে মাতাল অবস্থায় হাফ প্যান্ট আর টি শার্ট পড়েই আদালত পাড়ায় চলে আসেন তিনি। সম্প্রতি ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যে ঘটেছে এমন ঘটনা।

jugge logo

বিচারকের এমন আচরণে আশ্চর্য হয়েছে আদালতপাড়াও। ফলে এ ব্যাপারে রাজ্যটির আদালত ওই বিচারককে শাস্তি প্রদান করেছেন বলে খবর প্রকাশ করেছে ভারতীয় গণমাধ্যম।

জেলার পারিবারিক বিচারক জেষ্ঠ্যমনি মূঢ়াসিং নামের এক বিচারক ঘটিয়েছেন এমন ঘটনা। ছুটিতে থাকা অবস্থায় এ বিচারক মদ পান করে হাফ প্যান্ট এবং একটি টি শার্ট পড়েই কৈলাশহর আদালতে চলে আসেন। সেখানে এসে প্রথমে একজন সিভিল জজের কক্ষে প্রবেশ করে তার সাথে দুর্ব্যবহার করে তার টেবিল চেয়ার এলোপাতাড়ি ধাক্কাধাক্কি করতে থাকেন।

তারপর আদালতের সব বিচারক এবং উকিলদের সামনেই তার গায়ের টি শার্টটি খুলে ফেলে পাগলামির সব কাণ্ড দেখাতে থাকেন। জন মানুষে লোকারণ্য আদালত চত্বরে একজন বিচারকের এমন মাতলামি বিচারপ্রার্থী থেকে শুরু করে জজসাহেব সবাই উপভোগ করেন কিছুক্ষণ।

এ ঘটনার পরপরই ঊনকোটি জেলা জজের রিপোর্ট আর বিভাগীয় তদন্ত রিপোর্টের ভিত্তিতে ত্রিপুরা হাইকোর্ট জানায়, মূঢ়াসিং যা করেছেন তা কখনই একজন বিচারকের কাছে প্রত্যাশিত নয়। এতে তিনি আদালত আইন ভঙ্গ করেছেন বলে অভিহিত করা হয় এবং শাস্তি হিসেবে পরবর্তী দুই বছর বেতন না বাড়ানোর আদেশ দেয়া হয়।

 

আপনি আরো পড়তে পারেন 

২২৪ জন যাত্রী নিয়ে রুশ বিমান বিধ্বস্ত

আইএস দমনে বিশেষ সেনা দল পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

গরুর মাংসের উপকারিতা নিয়ে প্রবন্ধ ছেপে চাকরি হারালেন সম্পাদক