advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 12 মিনিট আগে

দক্ষিণ চীন সাগর নিয়ে প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে চীনের বিবাদ বেশ পুরনো। কিন্তু বিবাদমান সেই পানিসীমায় নতুন দ্বীপ শহর গড়ার পরিকল্পনা নিয়েছে সমাজতান্ত্রিক দেশ চীন। শুক্রবার দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় সানশার একজন কর্মকর্তা এ কথা জানান। এর ফলে প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে উদ্বেগ ক্রমশ বাড়ছে। যুক্তরাষ্ট্রও এরইমধ্যে তাদের  আপত্তির কথা জানিয়েছে।

artificial city of china in the seaদক্ষিণ চীন সাগরে কৃত্রিম শহর

সোমবার সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের এক প্রতিবেদনে ওই চীনা কর্মকর্তাকে উদ্বৃত্ত করে বলা হয়, দ্বীপ শহর নির্মাণের পরিকল্পনা সরাসরি তদারকি করছেন প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। তার নির্দেশনা অনুসারেই এ কাজ এগিয়ে নেয়া হবে।

এ পরিকল্পনার অংশ হিসেবে প্রথমে দক্ষিণ চীন সাগরে অবস্থিত আওতায় ইয়াংজিং দ্বীপের সঙ্গে ঝাওশু ও জিনকিং দ্বীপকে যুক্ত করা হবে। এরপর নতুন শহর গড়ে তোলা হবে, যেখানে স্ট্র্যাটেজিক সার্ভিস ও লজিস্টিক বেইজ থাকবে।

এ বিষয়ে সানশা শহর কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক ঝ্যাং জুন বলেন, ‘দ্বীপগুলোকে আলাদা আলাদা কাজে ব্যবহার করার জন্য আমাদের সতর্কভাবে পরিকল্পনা নেয়া দরকার। এ বিষয়ে স্থানীয় কর্মকর্তারা সক্রিয় পদক্ষেপ নেবেন। বিষয়টি জানিয়ে প্রেসিডেন্টকে সন্তোষজনক রিপোর্টও তারা দেখাবেন।’

এর আগে দক্ষিণ চীন সাগরের বিতর্কিত পানিসীমায় বেশ কিছু কৃত্রিম দ্বীপ গড়ে তোলে এশিয়ার অন্যতম পরাশক্তি চীন। এরপর সে সব দ্বীপকে কেন্দ্র করে নানাবিধ কর্মকাণ্ড পরিচালনার মাধ্যমে ওই এলাকায় নিজেদের আধিপত্য প্রতিষ্ঠা করার চেষ্টা করে যাচ্ছে দেশটি।

এ সব বিষয়ে প্রায়ই উদ্বেগ প্রকাশ করে আসছে জাপান, ফিলিপাইন, ভিয়েতনামসহ প্রতিবেশী দেশগেুলো। এ নিয়ে আঞ্চলিক মিত্রদের সামনে রেখে আপত্তি জানিয়ে আসছে যুক্তরাষ্ট্রও। তবে কারো উদ্বেগ বা আপত্তি আমলে না নিয়ে নিজেদের পরিকল্পনা একে একে বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে চীন।

sheikh mujib 2020