advertisement
আপনি দেখছেন

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় অর্ধশত মানুষ নিহত হবার সপ্তাহপূর্তি আজ। গেল শুক্রবারের ওই ভয়াবহ হামলার ঘটনায় মুসলমানদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেছে পুরো নিউজিল্যান্ড। আজ শুক্রবার স্থানীয় সময় দুপুর দেড়টার দিকে আজান এবং পরে জুমার নামাজও রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন ও রেডিওতে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। ফলে আজানের ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে উঠে পুরো নিউজিল্যান্ড।

prayers in new zealand 1

এদিন নামাজে মুসল্লিদের ঢল নামে। আজকের জুমার নামাজে মুসল্লিদিরে সংখ্যা ছিলো আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে বেশি। আর মুসলমানদের প্রতি সংহতি জানাতে আল নূর মসজিদের পাশবর্তী হেগলি পার্কে অন্যান্য ধর্মের কয়েক হাজার মানুষও সমবেত হন।

এদিকে ওই হামলার ঘটনায় হতাহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে রাষ্ট্রীয়ভাবে দুই মিনিট নীরবতা পালন করে নিউজিল্যান্ডবাসী। তাছাড়া আজান ও নামাজ রাষ্ট্রীয়মাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচার করায় এই নজিরবিহীন মুহূর্তের সাক্ষী হয়েছেন বিশ্বের নানা প্রান্তের মানুষ।

prayers in new zealand

গত সপ্তাহের মসজিদে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলা থেকে বেঁচে যাওয়া গামাল ফৌদা আজ জুমার নামাজে ইমামতি করেন। তিনি বলেন, ‘হামলা করে ওই বন্দুকধারী কয়েক লাখ মানুষের মনে আঘাত দিয়েছিলেন। কিন্তু আজ সেই স্থানে অগণিত মানুষের ভালোবাসা ও সমবেদনা দেখতে পাচ্ছি।’

হামলার ঘটনায় মুসলমানদের মন ভেঙে গেছে উল্লেখ করে গামাল ফৌদা বলেন, ‘মন ভাঙলেও আমরা ভেঙে পড়িনি। আমরা বেঁচে আছি, সবাই মিলে একত্রেই আছি। আমরা কাউকে বিভেদ সৃষ্টি করতে দেব না।’

prayers in new zealand 2

প্রসঙ্গত, গেল শুক্রবার জুমার নামাজের সময় আল নুর ও লিনউড মসজিদে নামাজরত মুসল্লিদের ওপর ভয়াবহ ও বর্বর সন্ত্রাসী হামলা চালায় এক মুসলিমবিদ্বেষী অস্ট্রেলীয় বন্দুকধারী। এতে অন্তত ৫০ জন নিহত ও ৪৮ জন আহত হন। এই হত্যাকাণ্ডে নিউজিল্যন্ডসহ গোটা পৃথিবী ধিক্কার জানায়।