আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 23 মিনিট আগে

গোলান মালভূমিতে ইসরায়েলের কোনো অধিকার নেই বলে মন্তব্য করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোয়ান। কনিয়া প্রদেশে একটি নির্বাচনী সমাবেশে শুক্রবার এমন মন্তব্য করেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট।

erdoan turkey president 3

তিনি বলেন, ‘জাতিসংঘের বিভিন্ন রেজ্যুলেশন অনুযায়ী ইসরায়েল গোলান মালভূমির ছোট্ট একটা অংশও দাবি করতে পারে না।’

এর আগে তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত ক্যাভুসোগ্লু বলেন, গোলানকে ইসরায়েলের অংশ হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার মার্কিন প্রচেষ্টা আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন।

টুইটারে তিনি বলেন, ‘সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় অখণ্ডতাকে সমর্থন করে তুরস্ক।’

অন্যদিকে, গোলান ইস্যুতে সিরিয়াকে পূর্ণ সমর্থন দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন আরব লীগের মহাসচিব আহমেদ আবুল গেইত।

শুক্রবার তিনি বলেন, তার সংস্থা মনে করে, গোলান মালভূমির ওপর সিরিয়ার পূর্ণ মালিকানা থাকা উচিত।

আর সিরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, দেশটির জনগণ সম্ভাব্য সব পন্থায় গোলান মালভূমিকে ইসরায়েলের দখলদারিত্ব থেকে উদ্ধার করবে।

এদিকে, জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থা শুক্রবার ইসরায়েল কর্তৃক গোলান মালভূমি দখলের বিরোধিতা করে একটি রেজ্যুলেশন পাস করেছে। এতে ইসরায়েলকে ওই রেজ্যুলেশন মেনে চলার আহ্বান জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প টুইটারে বলেন, নিরাপত্তা ও কৌশলগত কারণে এবং আঞ্চলিক স্থিতিশীলতার জন্য গোলানকে ইসরায়েলের সার্বভৌম অংশ বলে স্বীকৃতি দেয়া উচিত। ট্রাম্পের ওই বক্তব্যকে স্বাগত জানান ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। তার পরই উল্লিখিত সব প্রতিক্রিয়া দেখানো হয়।

উল্লেখ্য, ১৯৬৭ সালে আরব-ইসরায়েল যুদ্ধের সময় সিরিয়ার গোলান মালভূমি দখল করে নেয় ইসরায়েল। মালভূমির বিরাট অংশ এখনো ইসরায়েলের দখলে রয়েছে। অথচ জাতিসংঘের রেজ্যুলেশন অনুযায়ী গোলান মালভূমি দখলে রাখার কোনো অধিকার ইসরায়েলের নেই।