advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 33 মিনিট আগে

ইরানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি বলেছেন, গোলান মালভূমিকে ইসরায়েলের ভূখণ্ড হিসেবে ঘোষণা দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ঔপনিবেশিক মানসিকতার পরিচয় দিয়েছেন। আজ মঙ্গলবার ইরানের নির্বাহী বিভাগের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন।

president of islamic republic of iran

এর আগে গতকাল সোমবার ট্রাম্প এক ডিক্রিতে সই করেন, যেখানে দখল করা গোলান মালভূমির ওপর ইসরায়েলের পূর্ণ নিয়ন্ত্রণের স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে। ওই সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু।

ইরানি প্রেসিডেন্ট বলেন, ট্রাম্প আন্তর্জাতিক আইন ও নীতিমালা লঙ্ঘন করে একতরফাভাবে অন্য একটি দেশের ভূখণ্ডকে দখলদার ইসরায়েলের ভূখণ্ড হিসেবে ঘোষণা করেছেন। এটি একটি ঔপনিবেশিক পদক্ষেপ। বর্তমান শতাব্দীতে এই ধরনের পদক্ষেপের নজির নেই। দেশটির গণমাধ্যম পার্সটুডে এ খবর দিয়েছে।

উল্লেখ্য, ১৯৬৭ সালে ৬ দিনের আরব-ইসরায়েল যুদ্ধে সিরিয়ার গোলান মালভূমির দুই-তৃতীয়াংশ দখল করে নেয় ইসরায়েল। যদিও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ইসরায়েলকে ওই ভূমি নিয়ন্ত্রণের সম্মতি দেয়নি। কিন্তু শুধু আমেরিকার সমর্থনে তা দখলে রেখেছে ইসরায়েল।

হাসান রুহানি আরও বলেন, ঔপনিবেশিক আমলে কোনো কোনো শক্তিধর দেশ এ ধরনের অন্যায় পদক্ষেপ নিতো, কিন্তু বর্তমান যুগে এসেও এ ধরনের পদক্ষেপের কথা ভাবা যায় না।

sheikh mujib 2020