advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 32 মিনিট আগে

গত ডিসেম্বর থেকেই মস্তিষ্ক মৃত ছিল, কিন্তু তা নিয়েই একটি পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছেন ২৬ বছর বয়সী আন্তর্জাতিক ক্রীড়াবিদ এক নারী। বৃহস্পতিবার এ অবিশ্বাস্য ঘটনাটি ঘটে পর্তুগালে। শিশুটি হাসপাতালে সুস্থ্য থাকলেও তার মায়ের শেষকৃত্যের আয়োজন চলছে।

child bearing

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই নারী ক্রিড়াবিদের নাম ক্যাটারিনা সেকুয়েরা। মারাত্মক ধরনের অ্যাজমায় আক্রান্ত হওয়ার কারণে তার মস্তিষ্ক মৃত ঘোষণা করা হয়। কিন্তু এরপরও তিনি একটি পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। নবজাতকের নাম রাখা হয়েছে সালভাদর।

শিশু বয়স থেকেই অ্যাজমায় আক্রান্ত ক্রীড়াবিদ সেকুয়েরা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নিজের দেশকে প্রতিনিধিত্ব করেছেন। কিন্তু গর্ভবতী হওয়ার ১৯ সপ্তাহের পর তার অবস্থা গুরুতর হলে তিনি কোমায় চলে যান। পরিস্থিতির আরো অবনতি হলে গেল ২৬ ডিসেম্বর তার মস্তিষ্ক মৃত ঘোষণা করা হয়। এরপর গর্ভের সন্তানকে বাঁচাতে ভেন্টিলেটরে তাকে সংযুক্ত করা হয়।

এর মাধ্যমে মাতৃগর্ভে সন্তানের ৩২ সপ্তাহ হবার পর শিশুর জন্ম দেয়া হয়। পর্তুগালে এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো মস্তিষ্ক মৃত থাকা সত্ত্বেও সন্তান জন্মদানের ঘটনা ঘটল।

চিকিৎসকরা বলছেন, শিশুটিকে বাঁচানোর জন্যই অপেক্ষা করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল। কিন্তু অবস্থার দ্রুত অবনতি হওয়ায় বৃহস্পতিবার তার সিজার করা হয়।

শিশুটিকে মাতৃগর্ভে বাঁচিয়ে রাখার এ সিদ্ধান্ত সেকুয়েরার পরিবারের সাথে আলোচনা করেই নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে হাসপাতালের এথিকস কমিটি। শিশুটিকে আরো অন্তত তিন সপ্তাহ হাসপাতালে থাকতে হবে।

এ বিষয়ে সেকুয়েরার মা বলেছেন, মেয়েকে আমি বিদায় দিলেও তার স্বামী শিশুটিকে বাঁচানোর সিদ্ধান্ত নেন। তার ইচ্ছাতেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

sheikh mujib 2020