advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 15 মিনিট আগে

স্টেট অফ গ্লোবাল এয়ার (এসওজিএ) রিপোর্ট-২০১৯ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক হেলথ ইফেক্টস ইন্সটিটিউট ও ইউনিভার্সিটি অব ব্রিটিশ কলম্বিয়া। বুধবার প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৭ সালে ভারতে ১২ লাখের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে বিষ বাতাসে৷ ২০১৫ সালে ১১ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছিল দেশটিতে।

air pollution in india

ভারতীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, রাজনৈতিক দলগুলি যখন বায়ু দূষণ রুখতে নড়েচড়ে বসেছে, কংগ্রেস তাদের নির্বাচনী ইশতাহারে ন্যাশনাল ক্লিন এয়ার প্রোগ্রামকে আরও শক্তিশালী করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, তখন একটি বিষয় স্পষ্ট হয়ে গেল এসওজিএ’র রিপোর্টে৷ বিষয়টি হলো, বড় দেরি হয়ে গেছে৷

রিপোর্টের বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, ২০১৫ সালের তুলনায় ২০১৭ সালে মৃতের সংখ্যা ১ লাখ বেড়ে গেছে। বায়ু দূষণ ভারতে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে৷

খবরে বলা হয়েছে, বিশ্বের মধ্যে বায়ু দূষণে অতি বিপজ্জনক রাজধানীগুলির মধ্যে পয়লা নম্বরেই রয়েছে নয়া দিল্লির নাম৷

সারা বিশ্বে সবচেয়ে দূষিত অঞ্চলের তকমা জুটেছে ন্যাশনাল ক্যাপিটাল রিজিয়ন বা এনসিআর৷

এসওজিএ বলছে, বিশ্বে যে যে কারণে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়, তার মধ্যে পঞ্চম স্থানে রয়েছে বায়ু দূষণ৷

নিউজ১৮ তাদের প্রতিবেদনে বলেছে, দিল্লি, গুরগাঁও ও ফরিদাবাদসহ ভারতের গাঙ্গেয় শহরগুলিতে পরিস্থিতি এতটাই খারাপ যে, কোনো ব্যক্তি যদি ধূমপায়ী না-ও হন, তাও স্রেফ বায়ু দূষণের জন্য তিনি একজন ধূমপায়ীর মতো ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন৷

sheikh mujib 2020