advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 12 মিনিট আগে

তুরস্কের ভাইস-প্রেসিডেন্ট ফুয়াত ওকতেই বলেছেন, আমেরিকা সন্ত্রাসীদের সঙ্গে থাকবে নাকি তুরস্কের সঙ্গে বন্ধুত্ব রক্ষা করবে সে সিদ্ধান্ত তাদেরই নিতে হবে। মার্কিন ভাইস-প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের বক্তব্যের জবাবে এমন কথা বলেছেন তিনি।

turkey vice president

এক টুইট বার্তায় বুধবার তুর্কি ভাইস-প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রকে অবশ্যই বেছে নিতে হবে যে, তারা কি তুরস্কের বন্ধু হিসেবে থাকতে চায়, নাকি সন্ত্রাসীদের সঙ্গে যোগ দিয়ে আমাদের বন্ধুত্বকে ঝুঁকিতে ফেলতে চায়, যারা (সন্ত্রাসী) শত্রুদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ন্যাটো সহযোগীদের প্রতিরক্ষাকে দুর্বল করে তুলতে চায়।’

এর আগে মার্কিন ভাইস-প্রেসিডেন্ট বলেন, তরস্ককে অবশ্যই সিদ্ধান্ত নিতে হবে যে, তারা ন্যাটোর সঙ্গে থাকবে নাকি রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র কিনবে।

সামরিক জোট ন্যাটোর ৭০তম বর্ষপূর্তিতে যু্ক্তরাষ্ট্রের ভাইস-প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স বলেছেন, ‘তুরস্ককে অবশ্যই বেছে নিতে হবে যে, তারা কি ইতিহাসের সবচেয়ে সফল সামরিক জোটের গুরুত্বপূর্ণ সহযোগী হিসেবে থাকতে চায়, নাকি দায়িত্বহীন সিদ্ধান্ত (রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র কেনা) নিয়ে সেই অংশীদারিত্বের সম্পর্ককে ঝুঁকিতে ফেলতে চায়, যা আমাদের জোটকে খাটো করবে।’

উল্লেখ্য, রাশিয়ার অধ্যানুনিক প্রযুক্তির এস-৪০০ প্রযুক্তি কেনা নিয়ে তুরস্ক ও আমেরিকার মধ্যে অনেক দিন ধরেই উত্তেজনা চলছে। তার মধ্যেই গতকাল দুই প্রেসিডেন্ট ভাইস-প্রেসিডেন্ট এমন পাল্টপাল্টি বক্তব্য দিলেন।

প্রসঙ্গত, তুরস্ক এর আগে একাধিকবার জানিয়েছে, এস-৪০০ কেনার বিষয়টি এত দূর এগিয়েছে যে, সেখান থেকে আর পেছনে ফেরা সম্ভব নয়। কিন্তু তার পরও ওয়াশিংটন নানা হুমকি-ধামকি দিচ্ছে যাতে আঙ্কারা ওই আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনা থেকে সরে আসে।

sheikh mujib 2020